বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনায় মৃত্যু রেল প্রতিমন্ত্রী সুরেশ আঙ্গাদির, শোকের ছায়া রাজনৈতিক মহলে
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী সুরেশ আঙ্গাদি। ছবি সৌজন্য : টুইটার
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী সুরেশ আঙ্গাদি। ছবি সৌজন্য : টুইটার

করোনায় মৃত্যু রেল প্রতিমন্ত্রী সুরেশ আঙ্গাদির, শোকের ছায়া রাজনৈতিক মহলে

  • করোনা আক্রান্ত হয়ে তিনি দিল্লি এইমসে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এই প্রথম করোনা আক্রান্ত হয়ে কোনও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মৃত্যু হল। ৬৫ বছর বয়সে প্রয়াত হলেন কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী সুরেশ আঙ্গাদি। করোনা আক্রান্ত হয়ে তিনি দিল্লি এইমসে চিকিৎসাধীন ছিলেন। বুধবার তাঁর মৃত্যু হয় বলে এইমসের পক্ষ থেকে জানানো হয়। এদিন টুইট করে শোকবার্তা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

প্রয়াত মন্ত্রীর সঙ্গে এক সুন্দর মুহূর্তের ছবি পোস্ট করে টুইটে নরেন্দ্র মোদী লিখেছেন, ‘‌কর্ণাটকে দলকে আরও শক্তিশালী করতে কঠোর পরিশ্রম করেছিলেন সুরেশ আঙ্গাদি। তিনি বিজেপি–র এক ব্যতিক্রমী কর্মকর্তা। এমন এক কর্মঠ সাংসদ ও মন্ত্রীর মৃত্যু সততই দুঃখজনক। প্রতিটি রাজনৈতিক মহলেই প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। তাঁর পরিবার ও স্বজনের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।’‌

জানা গিয়েছে, গত ১১ সেপ্টেম্বর করোনায় আক্রান্ত হন কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী সুরেশ আঙ্গাদি। প্রথমদিকে তাঁর কোনও উপসর্গ দেখা দেয়নি। নিজেই এক সময় জানিয়েছিলেন যে ভাল আছেন। তাঁর রাজনৈতিক যাত্রা বেশ চমকপ্রদ। উত্তর কর্ণাটকের বেলগাঁও আসন থেকে জিতে তিনি পরপর ৪ বার সাংসদ হয়েছেন। উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে প্রথমবার নির্বাচনে দাঁড়ানোর পর থেকে তিনি কখনও হারেননি। আর ১৯৯৬ সালে বেলগাঁও জেলায় বিজেপি–র সহ সভাপতি হয়ে তিনি তাঁর রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর মৃত্যুতে এদিন বিজেপি–র নেতামন্ত্রী–সহ বহু রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব টুইট করে শোকজ্ঞাপন করেন। সুরেশ আঙ্গাদির মৃত্যুতে শোকার্ত কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া টুইটে লিখেছেন, ‘‌আমাদের রাজ্যের উন্নয়নের জন্য তিনি সবসময় কাজ করে গিয়েছেন।’‌ প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং টুইট করেন, ‘‌তিনি একজন উত্তম প্রশাসক, অসাধারণ সাংসদ ছিলেন। উষ্ণ ও স্নেহময় ব্যক্তিত্ব ছিল তাঁর।’‌ অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ লিখেছেন, ‘‌বিশ্বাস করা শক্ত যে মন্ত্রী সুরেশ আঙ্গাদি আর নেই। অমূল্য এই সহকর্মীর অভাব আমরা খুব ভাল ভাবেই বুঝতে পারব।’‌

উপ রাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু টুইটে শোকবার্তায় জানিয়েছেন, ‘‌জনগণের নেতা ছিলেন সুরেশ আঙ্গাদি। তিনি নিপীড়তদের উন্নয়নের জন্য সংগ্রাম করেছিলেন।’‌ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম টুইটে লিখেছেন, ‘‌মহামারীর শিকার হয়ে সুরেশ আঙ্গাদির মৃত্যুর ঘটনা দুর্ভাগ্যজনক।’ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির কথায়, ‘‌দলের প্রত্যেক কর্মকর্তার কথা মন দিয়ে শুনতেন সুরেশ আঙ্গাদি।’‌‌ টুইট করে প্রয়াত মন্ত্রীর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।

উল্লেখ্য, কয়েক মাসেই আগেই এক সাক্ষাৎকারে প্রয়াত মন্ত্রী সুরেশ আঙ্গাদি করোনাভাইরাসের ব্যাপারে বলেছিলেন, ‘‌করোনাভাইরাস কে তৈরি করেছে তা আমরা সবাই জানি৷ আমাদের ভয় দেখাতে ও সীমান্তে উত্তেজনা তৈরি করতেই এই ভাইরাসের উৎপত্তি৷ এই ভাইরাসকে সঙ্গে নিয়েই এবার আমাদের বাঁচা শিখতে হবে৷’‌

বন্ধ করুন