বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মণিপুরের বীর স্বাধীনতা সংগ্রামীদের স্মরণে আন্দামানের পাহাড় চূড়ার নয়া নামকরণ
পোর্ট ব্লেয়ারের সেলুলার জেলে বিনায়ক দামোদর সাভারকারের প্রতিকৃতির সামনে শ্রদ্ধার্ঘ্য অমিত শাহের। . (ANI Photo) (ANI/ PIB)
পোর্ট ব্লেয়ারের সেলুলার জেলে বিনায়ক দামোদর সাভারকারের প্রতিকৃতির সামনে শ্রদ্ধার্ঘ্য অমিত শাহের। . (ANI Photo) (ANI/ PIB)

মণিপুরের বীর স্বাধীনতা সংগ্রামীদের স্মরণে আন্দামানের পাহাড় চূড়ার নয়া নামকরণ

  • কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, উত্তরপূর্ব ভারতে ব্রিটিশদের রুখতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছিল মণিপুর।

মণিপুরের বীর স্বাধীনতা সংগ্রামীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের একটি পাহাড়ের চূড়াকে নতুন নামকরণ কেন্দ্রীয় সরকারের। মাউন্ট হ্যারিয়েটের জায়গায় এই চূড়ার নতুন নাম দেওয়া হচ্ছে মাউন্ট মণিপুর। শনিবার আন্দামানের পোর্ট ব্লেয়ারে একটি সভায় একথা ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। 

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, উত্তরপূর্ব ভারতে ব্রিটিশদের রুখতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছিল মণিপুর। ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে লড়াইতে কখনও পিছু হঠেনি মণিপুর। মণিপুরের যোদ্ধা যুবরাজ টিকেন্দ্রজিৎ ও জেনারেল থঙ্গলকে প্রকাশ্য়ে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল। ব্রিটিশরা ভেবেছিল তাদের প্রকাশ্য়ে ঝুলিয়ে দিয়ে ব্রিটিশ বিরোধী লড়াইকে থামিয়ে দেওয়া যাবে। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। এরপর ২২জন স্বাধীনতা সংগ্রামীকে মাউন্ট হ্যারিয়টে আটকে রাখা হয়েছিল। তাঁদের স্মরণেই মাউন্ট হ্যারিয়টের নাম বদলে রাখা হবে মাউন্ট মণিপুর।

মণিপুরের বীর স্বাধীনতা সংগ্রামীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের একটি পাহাড়ের চূড়াকে নতুন নামকরণ কেন্দ্রীয় সরকারের। মাউন্ট হ্যারিয়েটের জায়গায় এই চূড়ার নতুন নাম দেওয়া হচ্ছে মাউন্ট মণিপুর। শনিবার আন্দামানের পোর্ট ব্লেয়ারে একটি সভায় একথা ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। 

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, উত্তরপূর্ব ভারতে ব্রিটিশদের রুখতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছিল মণিপুর। ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে লড়াইতে কখনও পিছু হঠেনি মণিপুর। মণিপুরের যোদ্ধা যুবরাজ টিকেন্দ্রজিৎ ও জেনারেল থঙ্গলকে প্রকাশ্য়ে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল। ব্রিটিশরা ভেবেছিল তাদের প্রকাশ্য়ে ঝুলিয়ে দিয়ে ব্রিটিশ বিরোধী লড়াইকে থামিয়ে দেওয়া যাবে। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। এরপর ২২জন স্বাধীনতা সংগ্রামীকে মাউন্ট হ্যারিয়টে আটকে রাখা হয়েছিল। তাঁদের স্মরণেই মাউন্ট হ্যারিয়টের নাম বদলে রাখা হবে মাউন্ট মণিপুর।

|#+|

এটি আন্দামানের তৃতীয় উচ্চতম শৃঙ্গ। এই পাহাড়ে একটি যুদ্ধ স্মারক তৈরির ব্যাপারে মণিপুর সরকারকে সহায়তা করবে সরকার। তবে এই খবর শুনে টুইট করেছেন মণিপুরের মুখ্য়মন্ত্রী  এন বীরেন সিং। তিনি লিখেছেন, মহারাজা কূলচন্দ্র ও অন্যান্য স্বাধীনতা সংগ্রামীদের কালাপানি পেরিয়ে মাউন্ট হ্যারিয়েটে বন্দি রাখা হয়েছিল। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এই চূড়ার নতুন নামকরণ করেছেন মাউন্ট মণিপুর। আমাদের বীর নায়কদের সম্মান প্রদর্শনের জন্য প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। 

 

বন্ধ করুন