বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘ড্রাই স্টেট’ বিহারে মদ পাচারের অভিযোগে পূর্ণিয়ায় গ্রেফতার বাংলার ‘মাফিয়া’
 (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

‘ড্রাই স্টেট’ বিহারে মদ পাচারের অভিযোগে পূর্ণিয়ায় গ্রেফতার বাংলার ‘মাফিয়া’

  • গত এক বছর ধরে ‘মদ মাফিয়া’ সমর ঘোষকে ধরার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল বিহার পুলিশ।

বিহারের প্রোহিবিশন দফতর এবং পূর্ণিয়া পুলিশের একটি যৌথ দল পশ্চিমবঙ্গ ভিত্তিক মদ মাফিয়া সমর ঘোষকে গ্রেফতার করেছে বিহারে। ধৃত সমর ঘোষ পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুর জেলার রাথার দানিগাছি এলাকার বাসিন্দা। সমর ঘোষ বাংলা থেকে বিহারে মদ পাচারের সিন্ডিকেটের দ্বিতীয় বৃহত্তম পাচারকারী। গত এক বছর ধরে তাকে ধরার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল বিহার পুলিশ। সে বাংলা থেকে বিহারের অনেক জেলায় বিলিতি মদের সঙ্গে নকল মদ ও দেশি মদ পাচার করত।

এর আগে বিহার পুলিশ উত্তর দিনাজপুরের করন্দিঘি থানার ডালকোলা এলাকার বাসিন্দা মুর্শিদ আলমকে গ্রেফতার করেছিল মদ পাচারের অভিযোগে। প্রোহিবিশন ইউনিট ও পূর্ণিয়া পুলিশের যৌথ অভিযানে পূর্ণিয়া থেকেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। আর এবারে পূর্ণিয়া থেকেই আরও বাঙালিকে মদ পাচারের অভিযোগে গ্রেফতার করল প্রোহিবিশন ইউনিট ও পূর্ণিয়া পুলিশের যৌথ বাহিনী।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত সমর ঘোষের বিরুদ্ধে সুপল, কাটিহার, দরভাঙ্গা, সমষ্টিপুর এবং পূর্ণিয়া জেলার আটটি থানায় এফআইআর নথিভুক্ত করা হয়েছে। উল্লেখ্য, ড্রাই স্টেট হওয়া সত্ত্বেও বিহারে মদ বিক্রি চলে। দেশের দ্বিতীয় ড্রাই স্টেট হিসাবে গণ্য করা হয় বিহারকে। ২০১৫ সালে বিহারে ক্ষমতায় আসার পরে রাজ্যে মদ বিক্রি নিষিদ্ধ করে দিয়েছিলেন নীতীশ কুমার। তবে সরকারিভাবে মদ বিক্রি নিষিদ্ধ হলেও নানা পথে মদ মেলে বিহারে। এমনকী বিষ মদ খেয়ে অসুস্থ কিংবা মৃত্যুর মতো ঘটনাও হয়েছে সম্প্রতি।

বন্ধ করুন