বাড়ি > ঘরে বাইরে > করোনার পর ৪২ কোটি মানুষের কাছে পোঁছে গিয়েছে ৬৮ হাজার কোটির অর্থ সাহায্য
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

করোনার পর ৪২ কোটি মানুষের কাছে পোঁছে গিয়েছে ৬৮ হাজার কোটির অর্থ সাহায্য

  • বিভিন্ন প্রকল্পে, প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে মানুষের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। 

প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যান প্যাকেজের আওতায় ৪২ কোটি গরীবকে ৬৮ হাজার কোটি টাকা অর্থ সাহায্য দেওয়া হয়েছে। অর্থমন্ত্রকের তরফে এই কথা জানানো হয়েছে। 

এর মধ্যে ১৭, ৮৯১ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে  PM-KISAN প্রকল্প প্রায় ৯ কোটি কৃষককে। এছাড়াও তিন কিস্তিতে ৩১ হাজার কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে ২০ কোটি মহিলাকে প্রধানমন্ত্রী জন ধন যোজনার আওতায়। মার্চ মাসেই নির্মলা সীতারামন বলেছিলেন আর্থিক দুরবস্থা কাটানোর জন্য মাসে মাসে ৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে জনধন যোজনার আওতায় মহিলাদের তিন মাসের জন্য। 

এছাড়াও ২৮১৪.৫ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে ২.৮ কোটি বয়স্ক, বিধবা ও বিকলাঙ্গ মানুষদের। দুই কিস্তিতে এই টাকা দেওয়া হয়েছে। নির্মাণ শিল্পের সঙ্গে যুক্ত প্রায় ১.৮২ কোটি মানুষ প্রায় পাঁচ হাজার কোটি টাকা অর্থসাহায্য দিয়েছে। 

এছাড়াও এপ্রিল থেকে জুন অবধি প্রায় ৭৫ কোটি মানুষ বিনামূল্যে খাদ্যশস্য পেয়েছেন কেন্দ্রের থেকে। প্রতি মাসে প্রায় ৩৬ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্য শস্য বণ্টন করা হয়েছে। আশি কোটি মানুষকে নভেম্বর অবধি বিনামূল্যে ৫ কেজি চাল ও এক কেজি ডাল দেওয়া হচ্ছে এই প্রকল্পে। 

এপ্রিল ও মে মাসে প্রায় ৮.৫ কোটি সিলিন্ডার নেওয়া হয়েছে উজ্জ্বলা যোজনার আওতায়। এছাড়াও ৪৩ লক্ষ দরিদ্র কর্মীদের প্রায় ২৪৭৬ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে তাদের ইপিএফ টাকা হিসাবে। 

এছাড়াও ১০০ দিনের কাজে দৈনিক আয়ের পরিমাণ ২০ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। এতে মাসে প্রায় ২০০০ টাকা বেশি পাচ্ছেন শ্রমিকরা। উপকৃত হচ্ছেন ১৩.৬২ কোটি শ্রমিক পরিবার। 

 

 

বন্ধ করুন