বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাংলাদেশে ঘুরে যান, ভারতের উত্তরপূর্বের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের আমন্ত্রণ হাসিনার
জয়পুর এয়ারপোর্টে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। (Photo by Bangladesh Prime Minister's Office / AFP)  (AFP)

বাংলাদেশে ঘুরে যান, ভারতের উত্তরপূর্বের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের আমন্ত্রণ হাসিনার

  • বাংলাদেশের বিদেশপ্রতিমন্ত্রী মহম্মদ শাহরিয়র আলমের মতে, এবারের সফর সফলতম। এবার ৭টি চুক্তিপত্রে সই ও ৬টি প্রকল্পের উদ্বোধন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বক্তব্যের প্রসঙ্গও তিনি তুলে ধরেন।

বাংলাদেশের মধ্য় দিয়ে ভারতের অন্য়ান্য রাজ্য থেকে উত্তর পূর্বাঞ্চলে পণ্য আদানপ্রদানের নতুন সুযোগ বৃদ্ধি হয়েছে। এতে নতুন দরজা খুলছে বাংলাদেশেরও। আর এবারে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মধ্যে বৈঠক যেন মৈত্রীর সেই বন্ধনকে আরও দৃঢ় করল। সূত্রের খবর, এবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে এসে উত্তরপূর্বের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের তিনদিনের বাংলাদেশ সফরের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। তবে এখনও সফরের দিনক্ষণ স্থির হয়নি। মূলত ভারতের উত্তর পূর্বের রাজ্যগুলির সঙ্গে যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক গড়ে উঠছে সেটাকেই আরও সুদৃঢ় করতে চাইছে বাংলাদেশ সরকার।

শনিবার বাংলাদেশের বিদেশপ্রতিমন্ত্রী মহম্মদ শাহরিয়র আলম ভারতীয় সাংবাদিকদের কাছে জানিয়েছেন, ভারতের উত্তর পূর্বাঞ্চল বিষয়ক কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বৈঠক অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক হয়েছে। উত্তরপূর্বের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের তিনদিনের বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। উত্তর পূর্বের সঙ্গে সরাসরি বাণিজ্যের যে সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে তা নিয়ে ওই বৈঠকে আলোচনা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে এবার ভারত সফরে এসে বাংলার মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেও দেখা করতে চেয়েছিলেন বাংলাদেশের মুখ্য়মন্ত্রী। তবে সেই সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিল্লিতে ডাকা হয়নি। তবে এনিয়ে শাহরিয়র আলম জানিয়েছেন, পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে আমাদের সবসময়ই যোগাযোগ রয়েছে।

বাংলাদেশের বিদেশপ্রতিমন্ত্রী মহম্মদ শাহরিয়র আলমের মতে, এবারের সফর সফলতম। এবার ৭টি চুক্তিপত্রে সই ও ৬টি প্রকল্পের উদ্বোধন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বক্তব্যের প্রসঙ্গও তিনি তুলে ধরেন। বাংলাদেশের বিদেশপ্রতিমন্ত্রী মহম্মদ শাহরিয়র আলম জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন, বাংলাদেশের যা প্রয়োজন আমরা করব। এভাবে তাঁকে বলতে আমরা আগে শুনিনি।

বন্ধ করুন