বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লড়াইয়ের ময়দান ছাড়ছে না ইমরানের দল,প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে নাম লেখালেন কুরেশি
পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের তরফে পাকিস্তানের সদ্য প্রাক্তন হওয়া বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশিকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী করা হচ্ছে। (AFP)

লড়াইয়ের ময়দান ছাড়ছে না ইমরানের দল,প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে নাম লেখালেন কুরেশি

  • এদিকে আজই আনুষ্ঠানিক ভাবে শেহবাজ শরিফকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে বেছে নেয় পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলি।

বিনা যুদ্ধে হার না মানার কথা আগেই জানিয়েছিলেন ইমরান খান। তবে নিজের ‘সম্মান’ বাঁচাতে একের পর এক ‘কুরবানি’ দিচ্ছেন ইমরান। গতকালই ইমরান খানের জেদের জেরে পাকিস্তান ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির স্পিকার আসাদ কাইসার পদত্যাগ করেন। তারপর পাকিস্তানের সংবিধান মেনে আস্থা ভোট অনুষ্ঠিত হলে সেখানে ইমরান খান গদিচ্যুত হন। আর এরই মাঝে বিরোধীদের তরফে শেহবাজ শরিফকে বেছে নেওয়া হয় প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে। এবার জানা গিয়েছে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের তরফে পাকিস্তানের সদ্য প্রাক্তন হওয়া বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশিকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, আস্থা ভোটে এটা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে যে ইমরান খানের সরকার সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছে। সেখানে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে তাঁর দল থেকে যে কেউ দাঁড়ালে যে তাঁর হার নিশ্চিত, সেটাও ইমরান জানেন। তবে নিজের জেদের কারণেই তিনি শাহ মাহমুদ কুরেশিকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে দাঁড় করাচ্ছেন। এদিকে অনেকের মনেই প্রশ্ন জেগেছে, তাহলে কি পাকিস্তানের শাসক দলের বিক্ষুব্ধ সাংসদরা দলে ফিরছেন। তবে সেক্ষেত্রেও ইমরানের কাছে ম্যাজিক ফিগার থাকার কথা নয়।

এদিকে আজই আনুষ্ঠানিক ভাবে শেহবাজ শরিফকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে বেছে নিল পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলি। ইমরান খান গদিচ্যুত হতেই যে শেহবাজ শরিফই পাক প্রধানমন্ত্রী হবেন, তা একপ্রকার নিশ্চিত ছিল। শুধু আনুষ্ঠানিকতার দেরি ছিল। রবিবারই সেই আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলি। সোমবার পাক সংসদে ভোটাভুটির মাধ্যমে বেছে নেওয়া হবে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীকে।

 

বন্ধ করুন