বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে তারকাদের টুইটে বিজেপির IT সেলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি কংগ্রেসের
কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে অমৃতসরে বিক্ষোভ। (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে অমৃতসরে বিক্ষোভ। (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে তারকাদের টুইটে বিজেপির IT সেলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি কংগ্রেসের

  • টুইট কাণ্ডে বিজেপির আইটি সেল ছাড়াও নাকি ১২ জন আছেন।  অভিযোগ কংগ্রেসের।

কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে তারকাদের করা টুইটের নেপথ্যে রয়েছে বিজেপি আইটি সেল এবং ১২ জন প্রভাবশালী। এই অভিযোগ তুলে শোরগোল ফেলে দিয়েছে মহারাষ্ট্রের প্রদেশ কংগ্রেস। একদিন আগেই মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ দাবি করেন, প্রাথমিক তদন্তের পর নাকি এই তথ্যই উঠে এসেছে মুম্বই পুলিশের হাতে। সেই রেশ ধরে প্রদেশ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক তথা মুখপাত্র সচিন সাওয়ান্ত বলেন, ‘‌পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে এই ঘটনার পিছনে বিজেপির আইটি সেল জড়িত এবং ১২ জন রয়েছেন। এটা দেশের সঙ্গে ষড়যন্ত্র করেছে বিজেপি। পুলিশের উচিত তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া।’‌

সচিন সাওয়ান্ত আরও জানান, কেন তারকারা সামনে এসে বলছেন না যে, এই টুইট তাঁরা বিজেপির চাপে পড়ে করেননি। রিহানা, গ্রেটা থানবার্গের মতো আন্তর্জাতিক মুখরা কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে টুইট করার পরই দেশের একাধিক তারকা আসরে নামেন। ভারতের সার্বভৌমত্ব রক্ষার বার্তা দেন সচিন তেন্ডুলকর, লতা মঙ্গেশকর, সুনীল শেট্টি, অক্ষয় কুমার, বিরাট কোহলির মতো তারকারা। সকলেই আহ্বান করেন বিদেশি শক্তির দ্বারা প্রভাবিত না হয়ে ‘ঐক্যবদ্ধ ভারত’ গড়ার। মহারাষ্ট্র সরকার ঘোষণা করে সেলিব্রিটিদের এই টুইট নিয়ে তদন্ত হবে। এবার তা নিয়েই সোচ্চার হয়েছেন সচিন সাওয়ান্ত।

যদিও এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন মহারাষ্ট্র বিজেপির মিডিয়া সেলের প্রধান বিশ্বাস পাঠক। তিনি বলেন, ‘‌এই টুইটগুলি তারকাদেরই করা। তাহলে কীভাবে আমাদের আইটি সেলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য করা টুইট, কোন আইনের দ্বারা ব্যবস্থা নেবে। আমরা সবকিছুর মুখোমুখি হতে প্রস্তুত।’‌

বন্ধ করুন