বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আমেরিকানদের সমান হারে দিতে হবে H-1B ভিসাধারীদের বেতন, নয়া নিয়মে ধাক্কা ভারতীয়দের
আমেরিকানদের সমান হারে H-1B ভিসাধারীদের বেতন দিতে হবে, নয়া নিয়মে ধাক্কা ভারতীয়দের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)
আমেরিকানদের সমান হারে H-1B ভিসাধারীদের বেতন দিতে হবে, নয়া নিয়মে ধাক্কা ভারতীয়দের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)

আমেরিকানদের সমান হারে দিতে হবে H-1B ভিসাধারীদের বেতন, নয়া নিয়মে ধাক্কা ভারতীয়দের

  • সেই নয়া নিয়মের ফলে বড়সড় ধাক্কা খেতে পারেন ভারতীয়রা।

কম বেতনে বিদেশি কর্মীদের দিয়ে কাজ করানোর রীতিতে ইতি টানতে চলেছে আমেরিকা। মঙ্গলবার মার্কিন প্রশাসনের তরফে একটি নিয়ম চূড়ান্ত করা হয়েছে। যে নিয়ম অনুযায়ী, স্থানীয় কর্মীদের মতো বা তার থেকে বেশি হারের বেতনে বিদেশি কর্মীদের নিয়োগ করা যাবে। যে কর্মীরা এইচ-১বি-সহ বিদেশি ভিসায় আমেরিকায় কাজ করতে আসেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এতদিন আমেরিকানদের পরিবর্তে কম টাকায় বিদেশি কাজ করিয়ে নেওয়ার যে প্রবণতা তৈরি ছিল, তার ফলে স্থানীয়রা কাজের সুযোগ হারাতেন। কম টাকায় বিদেশি কর্মীদের কাজ করিয়ে ফায়দা লুটত সংস্থাগুলি। শ্রমসচিব ইউজিন স্কালিয়া দাবি করেছেন, নয়া নিয়মের ফলে বেতন সুরক্ষা নিশ্চিত হবে। ভিসা প্রোগামের অপব্যবহার রুখবে। একইসঙ্গে কম বেতনের বিদেশিদের জন্য কম বেতনে কাজের যে ঝুঁকি তৈরি হত, তা থেকে মার্কিন কর্মীদের স্বার্থ সুরক্ষিত করবে। 

স্কালিয়া বলেন,  ‘কংগ্রেস যেভাবে চাইছে, সেভাবেই এই গুরুত্বপূর্ণ বিদেশি কর্মীদের বিভিন্ন প্রোগামগুলিকে চালু রাখতে সাহায্য করবে এই নয়া নিয়ম। একইসঙ্গে আমেরিকানদের জন্য স্থায়ী এবং ভালো বেতনের চাকরির সুনিশ্চিত হবে।’ আমেরিকান গেজেটে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের ৬০ দিন পর সেই নয়া নিয়ম কার্যকর হবে।

সেই নয়া নিয়মের ফলে বড়সড় ধাক্কা খেতে পারেন ভারতীয়রা। কারণ বছরে যে ৮৫,০০০ এইচ-১বি ভিসার অনুমোদন দেওয়া হয়, তার ৭০ শতাংশই ভারতের হয়। বিশেষজ্ঞদের মতে, আমেরিকানদের মতো ভারত-সহ অন্যান্য দেশের কর্মীদেরও একই হারে বেতন দিতে হওয়ার ফলে কম বেতনে কাজ করিয়ে নেওয়ার আর কোনও ফায়দা নিতে পারবে না সংস্থাগুলি। সেক্ষেত্রে এতদিন যে উদ্দেশে বিদেশি কর্মীদের নিয়োগ করা হত, নয়া নিয়মে আর সেই সুবিধা মিলবে না। ফলে একধাক্কায় মার্কিন মুলুকে কমে যেতে পারে ভারতীয় কর্মীদের সংখ্যা।

বন্ধ করুন