বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'সুকমাতে এসেও আলোচনায় বসতে রাজি যদি মাওবাদীরা…' জানালেন ভূপেশ বাঘেল
ভূপেশ বাঘেল, মুখ্যমন্ত্রী ছত্তিশগড় (HT File Photo) (HT_PRINT)

'সুকমাতে এসেও আলোচনায় বসতে রাজি যদি মাওবাদীরা…' জানালেন ভূপেশ বাঘেল

  • মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কোন গ্রাউন্ডে ওদের সঙ্গে আলোচনায় বসব? আমি ভারতে বাস করি। মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে একটি সাংবিধানিক পদে রয়েছি। আমি যদি কারোর সঙ্গে আলোচনায় বসি তবে সংবিধানের প্রতি তাঁদের আস্থা থাকতে হবে। যদি ভারতের সংবিধানের প্রতি বিশ্বাস না থাকে তবে আপনাদের সঙ্গে আমি আলোচনায় বসতে পারব না।’

ঋতেশ মিশ্র

শান্তি আলোচনার জন্য প্রস্তুত মাওবাদীরা। তবে এনিয়ে একাধিক শর্ত দিয়েছিলেন মাওবাদীরা। তবে বৃহস্পতিবার এনিয়ে ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন শান্তি আলোচনা তখনই সম্ভব যখন সংবিধানের প্রতি আস্থা থাকবে তাঁদের। মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল জানিয়েছেন, সুকমা, কিংবা মাওবাদীরা যেখানে বলবেন সেখানেই আলোচনার জন্য যাব, কিন্তু প্রথমে ভারতের সংবিধানকে মানতে হবে তাঁদের।

তিনি বলেন, সুকমাতে প্রথম মাওবাদীদের বিষয়টি প্রবেশ করেছিল। বর্তমানে সেই প্রভাব অনেক কমেছে। যদি মাওবাদীরা আলোচনা চান তবে আমাদের সব দরজা খোলা। কিন্তু একটাই শর্ত দেশের সংবিধানকে মান্যতা দিতে হবে।

যেদিন ওরা সংবিধানের প্রতি আস্থা দেখাবে সেদিনই সুকমা অথবা যেখানে তাঁরা বলবেন সেখানেই আলোচনায় বসব।

তিনি বলেন, ‘কোন গ্রাউন্ডে ওদের সঙ্গে আলোচনায় বসব? আমি ভারতে বাস করি। মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে একটি সাংবিধানিক পদে রয়েছি। আমি যদি কারোর সঙ্গে আলোচনায় বসি তবে সংবিধানের প্রতি তাঁদের আস্থা থাকতে হবে। যদি ভারতের সংবিধানের প্রতি বিশ্বাস না থাকে তবে আপনাদের সঙ্গে আমি আলোচনায় বসতে পারব না।’ 

এদিকে গত ৬ মে মাওবাদী মুখপাত্র বিকল্পের নামে একটি বিবৃতি জারি করা হয়। যেখানে অভিযোগ তোলা হয় একদিকে সরকার বলছে শান্তি আলোচনা ও অন্যদিকে এয়ার স্ট্রাইক করা হচ্ছে। 

বন্ধ করুন