বাংলা নিউজ > ময়দান > মোহনবাগানকে কটাক্ষ করা আনেসের গোকুলামের AFC Cup অভিযান শেষ গ্রুপ লিগেই

মোহনবাগানকে কটাক্ষ করা আনেসের গোকুলামের AFC Cup অভিযান শেষ গ্রুপ লিগেই

গোকুলামের এএফসি কাপ অভিযান শেষ। ছবি: টুইটার

বাঁচা-মরার ম্যাচে কলকাতার সল্টলেক স্টেডিয়ামে শুরুর দুই-তিন মিনিটের মধ্যেই কেরালাকে চেপে ধরেছিল কিংস। সুযোগ তৈরি করেও ফিনিশিংটা করতে পারছিলেন না রবিনহোরা।

শুভব্রত মুখার্জি: এটিকে মোহনবাগানের থেকে নাকি রিয়াল কাশ্মীর দল তার গোকুলাম কেরালাকে বেশি চাপে রেখেছিল। এমন বিস্ফোরক মন্তব্য মাত্র কয়েকদিন আগে এএফসি কাপের ম্যাচে মোহনবাগানকে হারিয়ে করেছিলেন গোকুলাম কেরালার কোচ ভিনসেঞ্জো আলবার্তো আনেস। সেই এটিকে মোহনবাগান যখন এএফসি কাপের নক আউট পর্যায়ে পৌঁছে গেল। তখন মোহনবাগানের সঙ্গে এক গ্রুপে থাকা আনেসের গোকুলামের অভিযান শেষ হয়ে গেল শেষ ১৬ পর্যায়েই। মঙ্গলবার গ্রুপের প্রথম ম্যাচেই বসুন্ধরা কিংসের কাছে ২-১ ফলে হেরে এএফসি কাপের গ্রুপ পর্যায় থেকেই ছিটকে যায় গোকুলাম।

জিতলে বেঁচে থাকবে নক আউটের সম্ভাবনা আর হারলেই সবশেষ-- এমন সমীকরণের কথা মাথায় রেখেই ম্যাচে গোকুলামের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত জয় তুলে নিল বসুন্ধরা কিংস। গোকুলাম কেরালাকে ২-১ ব্যবধানে হারাল তারা। কিংসের হয়ে গোল করেছেন রবসন রবিনহো ও নুহা মারং।

ফলে তিন ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিল আনেসের গোকুলাম কেরালার। যিনি আবার বিশ্বাস করেন আই লিগ এবং আইএসএল খেলা ক্লাবগুলোর মধ্যে সাধারণত নাকি কোনও পার্থক্যই নেই। গোকুলামের এই হারের ফলে বিদায় নিশ্চিত হয় মাজিয়ারও। বাঁচা-মরার ম্যাচে কলকাতার সল্টলেক স্টেডিয়ামে শুরুর দুই-তিন মিনিটের মধ্যেই কেরালাকে চেপে ধরেছিল কিংস। সুযোগ তৈরি করেও ফিনিশিংটা করতে পারছিলেন না রবিনহোরা।

রবিনহোর পায়েই স্বস্তি ফেরে কিংসকে শিবিরে। ৩৬ মিনিটে ব্রাজিলের এই ফরোয়ার্ডের চোখ-ধাঁধানো গোলে কেরালার রক্ষণ ভেঙে দেয় কিংস। বক্সের কোনা থেকে ডান পায়ের বাঁকানো শটে দূরের পোস্টে জাল খুঁজে পান তিনি। বিরতিতে যাওয়ার সময় খেলার ফল ছিল কেরালার বিরুদ্ধে ১-০।

দ্বিতীয়ার্ধের ৫৪ মিনিটে রবিনহো-নুহা রসায়নে ব্যবধান বাড়াতে সক্ষম হয় কিংস। বাঁ প্রান্ত থেকে রবিনহোর ক্রসে গোলমুখে লাফিয়ে উঠে হেড করে গোল করেন নুহা। ৭৫ মিনিটে একটি গোল শোধ করে ম্যাচ জমিয়ে দেয় কেরালা। ডান প্রান্ত থেকে জসিমের ক্রসে ছয় গজ বক্সের সামনে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান পায়ের শটে অনবদ্য গোল করেন ফ্লেচার। এরপরে ম্যাচে আর কোন গোল হয়নি। ফলে বসুন্ধরার কাছে ২-১ ফলে হেরে গ্রুপ পর্যায় থেকেই বিদায় নেয় গোকুলাম।

বন্ধ করুন