বাংলা নিউজ > ময়দান > বিসিসিআইয়ের নতুন যৌন হয়রানি নীতি আওতায় সমস্ত ক্রিকেটার
বিসিসিআই এর অফিসের বাইরে (ছবি:রয়টার্স) (REUTERS)
বিসিসিআই এর অফিসের বাইরে (ছবি:রয়টার্স) (REUTERS)

বিসিসিআইয়ের নতুন যৌন হয়রানি নীতি আওতায় সমস্ত ক্রিকেটার

  • এই ধরণের কলঙ্কের হাত থেকে রক্ষা করতে উদ্যোগী হল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। চালু হল নতুন যৌন হয়রানি নীতি। যার আওতায় আনা হল সমস্ত ক্রিকেটারকে।

শুভব্রত মুখার্জি: ক্রীড়াক্ষেত্রে যৌন হেনস্থা অনেকটা কর্কট রোগের মতন। প্রায় সমস্ত ক্ষেত্রেই আনাচে কানাচে ছড়িয়ে রয়েছে এই 'মারণব্যাধি'। সাম্প্রতিক কালে আমেরিকার স্টার জিমন্যাস্ট সিমোনা বাইলস এক তদন্ত কমিশনের সামনে জানিয়েছেন কী ভাবে বছরের পর বছর টিমের ডাক্তার তার যৌন হয়রানি করেছেন। ঘটনা সামনে আসার পরেই হইচই পড়ে যায়। এমন আবহে দাঁড়িয়ে ভারতীয় ক্রিকেটকে এই ধরণের কলঙ্কের হাত থেকে রক্ষা করতে উদ্যোগী হল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। চালু হল নতুন যৌন হয়রানি নীতি। যার আওতায় আনা হল সমস্ত ক্রিকেটারকে।

যৌন হয়রানি নীতি আর কয়েকদিনের মধ্যেই কার্যকারি করা হতে চলেছে। যা রূপায়ণের পরবর্তীতে ভারতের সিনিয়র থেকে অনূর্ধ্ব ১৬ টিমের ক্রিকেটাররা এর আওতায় আসবেন। ক্রিকেটারদের পাশাপাশি বিসিসিআই কর্তা, অফিসের কর্মীরা, আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল, অ্যাপেক্স কাউন্সিলের সদস্যরাও এই নীতির মধ্যে থাকবেন। যা খবর তাতে করে মোট ৯ পাতার নথি রূপায়ণের পথে বিসিসিআই। চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠিত হবে যারা যৌন হয়রানির বিষয়ে কোন অভিযোগ পেলে তা খতিয়ে দেখবেন।

কমিটি এখনও অবশ্য গঠন হয়নি। দ্রুত তা তৈরি করবে বোর্ড।  বাধ্যতামূলকভাবে এই কমিটির প্রিসাইডিং অফিসার করা হবে এক মহিলাকে । কমিটিতে দু’জন সামাজিক ও আইন বিশেষজ্ঞ সদস্য থাকবেন। এক সদস্য থাকবেন বেসরকারি সংস্থার যিনি এই বিষয়ে অভিজ্ঞ। কোন ঘটনা ঘটলে তিন মাসের মধ্যে তা নিয়ে অভিযোগ দায়ের করতে হবে কমিটির কাছে। অভিযুক্তকে সাত দিনের মধ্যে তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের জবাব দিতে হবে। ঘটনার নিষ্পত্তির জন্য কমিটি ৯০ দিন সময় পাবে। কমিটিকে রিপোর্ট জমা করতে হবে বিসিসিআইয়ের কাছে। সেই রিপোর্টের ভিত্তিতে দু’মাসের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবে বোর্ড। বোর্ডের সিদ্ধান্তে কোনপক্ষ সন্তুষ্ট না হলে আদালতে আবেদন করা যাবে।

বন্ধ করুন