বাংলা নিউজ > ময়দান > ঐতিহাসিক সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে তামিমরা, পারবেন কি নতুন ইতিহাস রচনা করতে?
মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে তামিম ইকবাল।
মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে তামিম ইকবাল।

ঐতিহাসিক সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে তামিমরা, পারবেন কি নতুন ইতিহাস রচনা করতে?

  • প্রথমবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজ জয়ের হাতছানি বাংলাদেশের সামনে।

শুভব্রত মুখার্জি

২০১৫ সালটা ছিল শাকিব আল হাসানদের ক্রিকেট ইতিহাসে ঐতিহাসিক বছর। সেই বছরে ওয়ান ডে সিরিজে একের পর এক সাফল্যের মুখ দেখেছে শাকিব বাহিনী। ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে প্রথমবার তারা দ্বিপাক্ষিক সিরিজ জয়লাভ করেছিল। 'কাটার মাস্টার' মুস্তাফিজুর রহমানের কাটারের 'বিষাক্ত' ছোবলে ক্ষতবিক্ষত হয়ে গিয়েছিল বিপক্ষের তাবড় তাবড় ব্যাটসম্যানরা। সেই ঐতিহাসিক বছরকে বাংলাদেশ ক্রিকেটের ইতিহাসে 'সোনার' সময় বললেও অত্যুক্তি হবে না। তারপর পদ্মা দিয়ে বয়ে গিয়েছে প্রচুর জল। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপেও বাংলাদেশ যথেষ্ট ভাল পারফরম্যান্স করেছিল।

বর্তমানে টাইগাররা ব্যস্ত নিজেদের দেশের মাটিতে লঙ্কানদের চ্যালেঞ্জ সামলাতে। মঙ্গলবার সফরকারী শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে জিততে পারলেই স্বাগতিক টাইগাররা যে শুধু সিরিজ জয় নিশ্চিত করবে তা নয়, একই সঙ্গে তারা গড়বে নতুন ইতিহাস। শ্রীলঙ্কা উপমহাদেশের একমাত্র দল যাদের বিপক্ষে বাংলাদেশের কখনও ওয়ান ডে সিরিজ জেতেনি। দুবার সিরিজ জয়ের দ্বারপ্রান্ত থেকে তাদের ফিরতে হয়েছে। সফল হতে পারেনি টাইগাররা। এবার সেই ইতিহাস বদলে ফেলার সুযোগ রয়েছে।

প্রসঙ্গত ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ জয় করেছে বাংলাদেশ। তবে অজেয় থেকে গেছে শ্রীলঙ্কা। দুই দল এ পর্যন্ত আটটি সিরিজ খেললেও ছয়টি সিরিজই পকেটস্থ করেছে দ্বীপরাষ্ট্র। ২০১৩ ও ২০১৭ সালের দুই সিরিজ শেষ হয়েছে ১-১ ফলে। বাংলাদেশ যে দুটি সিরিজ ড্র করেছে সে দুটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল শ্রীলঙ্কার মাটিতে।

২০১৩ সালে বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সিরিজের প্রথম ম্যাচে হেরে গেলেও তৃতীয় ম্যাচে জিতে সিরিজ ড্র করে। দ্বিতীয় ম্যাচ বৃষ্টির কারনে খেলা হয়নি। ২০১৭ সালে বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচে জয় লাভ করেছিল। কিন্তু তৃতীয় ম্যাচে হেরে সিরিজ হাতছাড়া করে। এই ক্ষেত্রেও দ্বিতীয় ম্যাচ বৃষ্টিতে পন্ড হয়। উল্লেখ্য মঙ্গলবারের ম্যাচেও রয়েছে বৃষ্টির চোখ রাঙানি। আবহাওয়ার পুর্বাভাসে ভারী বৃষ্টিপাতের আশঙ্কার কথা বলা হয়েছে।

বন্ধ করুন