বাংলা নিউজ > ময়দান > চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জিতল বার্সা, জুভেন্টাস,হারল ম্যান ইউ
গোল করার পর মেসি (REUTERS)
গোল করার পর মেসি (REUTERS)

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জিতল বার্সা, জুভেন্টাস,হারল ম্যান ইউ

  • মেসি, রোনাল্ডো দুজনেই জয়ের মুখ দেখলেন। 

করোনার প্রকোপ থেকে সদ্য মুক্তি পেয়েছেন পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো।তারপরেই বুধবারের ম্যাচে নামলেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে প্রত্যাশাই অনেক বেশি ছিল সমর্থকদের। তবে কাল রাতে গোল পাননি তিনি। তবে বড় জয় পেয়েছে জুভেন্টাস।

হাঙ্গেরির পুসকাস অ্যারেনায় ফেলেঙ্কভারোসের মুখোমুখি হয় জুভেন্টাস।খাতায় কলমে দুর্বল ক্লাবকে শুরু থেকেই চেপে ধরে রোনাল্ডোরা।ম্যাচের মাত্র ৭ মিনিটেই গোল করেন আলভারো মোরাতা।প্রথমার্ধ্ব শেষ হয় ১-০ গোলেই। দ্বিতীয়ার্ধ্বেও আক্রমণ শানাতে থাকে জুভে। ৬০ মিনিটের মাথায় ফের গোল করেন মোরাতা। এবার তাকে অ্যাসিস্ট করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো।ম্যাচের ৭২ মিনিটে গোল করে ৩-০ করেন পাওলো দিবালা। ফেরেঙ্কভারোস বেশ চাপে পড়ে যায়। ৮২ মিনিটে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালেই জড়িয়ে দেন ডিভ্যালি।ম্যাচের একেবারে শেষ মিনিটে বোলির গোলে,ব্যবধান কমান ফেরেঙ্কভারোস। ৪-১ গোলের জয় পায় আন্দ্রে পিরলোর জুভেন্টাস।

বার্সেলোনা নিজেদের ঘরোয়া লিগ লা লিগাতে চলতি মরসুমে পয়েন্ট টেবিলে রয়েছে ১২ নম্বরে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অবশ্য মেসিদের অবস্থান অনেকটাই ভাল।এখন পর্যন্ত শতভাগ জয় রয়েছে রোনাল্ড কোম্যান বাহিনীর। ন্যু ক্যাম্পে প্রতিপক্ষ যখন রাশিয়ান ক্লাব ডায়নামো কিয়েভের মুখোমুখি হয়েছিল মেসিরা।মরসুমে প্রথম বারের মতো ফিরলেন তাদের এক নম্বর ওয়ান গোলকিপার মার্ক টের স্টেগান।ম্যাচের ৪ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি পান মেসি। ডি বক্সে তাঁকে বাজে ট্যাকেল করে ফেলে দেন কিয়েভ ডিফেন্ডার। রেফারির দেওয়া পেনাল্টি থেকে গোল করেন মেসি।একের পর এক আক্রমণের পর গোল না পেয়ে নিজেদের খেলা গুছিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে বার্সা। বিরতিতে যাওয়ার সময় খেলার ফল ছিল বার্সার পক্ষে ১-০। দ্বিতীয়ার্ধে ডায়নামো কিয়েভ প্রথম মিনিটেই কর্নার থেকে গোলও পেয়ে যায় । তবে রেফারির সিদ্ধান্তে বাতিল হয় সেই গোল। ৬৪ মিনিটে গোলকিপার নেশরেট ব্যর্থ হন পিকের নিখুঁত হেড থামাতে। ফলে ২-০ তে এগিয়ে যায় বার্সা। ৭৫ মিনিটে স্টেগানের হাত থেকে ফস্কানো বল নিয়ে গোল করেন ভিক্টর শ্যেনকভ। ইউক্রেনিয়ান গোলকিপার নেশরেট এদিন তিনকাঠির নীচে অনবদ্য না খেললে আরো লজ্জার হার হতে পারত রাশিয়ান ক্লাবটির।

অপরদিকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মরসুমের প্রথম পরাজয়ের সম্মুখীন হল রেড ডেভিলসরা। ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে হারাল অখ্যাত ইস্তানবুল বাসাকসাহির। তাদের বিরুদ্ধে ২-১ গোলে হারল রেড ডেভিলরা।ইস্তানবুল বাসাকসাহিরের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই অল আউট ফুটবল খেলতে শুরু করে অতিথি ম্যান ইউ। ডেভিড ডি জিয়া, পগবা, ম্যাকটোমিনরা এদিন বেঞ্চে বসে ছিলেন। ১২ মিনিটে প্রতি আক্রমন থেকছ ডেম্বা বা'র গোলে এগিয়ে যায় ইস্তানবুল। ৪০ মিনিটে ভিস্কার গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ইস্তানবুল। তিন মিনিট বাদেই লুক শ'র ক্রস থেকে হেড করে এক গোল শোধ করেন মার্শিয়াল। বিরতির পরে অনেকটাই অগোছালো ফুটবল খেলতে থাকে দু'দল। এইসময় ব্রুনোর ফ্রি কিক আটকে দেন গুনক। ৬০ মিনিটে মাঠে নামেন পল পগবা এবং এডিসন কাভানি। আক্রমণে গতি আসলেও পরাস্ত করা সম্ভব হয়নি গুনকেকে। ফলস্বরূপ নিজেদের ইউসিএল ইতিহাসের প্রথম জয় তুলে নেয় বাসাকসাহির।

বন্ধ করুন