বাংলা নিউজ > ময়দান > জাতীয় নির্বাচক হওয়ার দৌড়ে চেতন-মনিন্দররা, রিংয়ে টুপি ছুঁড়ে দিতে পারেন আগরকর
জাতীয় দলে থাকার সময় অজিত আগরকর। ছবি- টুইটার।
জাতীয় দলে থাকার সময় অজিত আগরকর। ছবি- টুইটার।

জাতীয় নির্বাচক হওয়ার দৌড়ে চেতন-মনিন্দররা, রিংয়ে টুপি ছুঁড়ে দিতে পারেন আগরকর

  • পূর্বাঞ্চল থেকে শিবসুন্দর দাসের লড়াই কঠিন করতে পারেন রণদেব বসু।

জাতীয় নির্বাচক হওয়ার দৌড়ে নাম লেখালেন মনিন্দর সিং, চেতন শর্মার মতো হেভিওয়েট প্রাক্তন ক্রিকেটাররা। রিংয়ে টুপি ছুঁড়ে দিতে চলেছেন অজিত আগরকরও। পূর্বাঞ্চল থেকে শিবসুন্দর দাসের লড়াই কঠিন করতে পারেন রণদেব বসু।

অজিত আগরকর যদি শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে নামেন, তবে বিসিসিআইয়ের পক্ষে কঠিন হবে তাঁর নাম উপেক্ষা করা। তাই যদি হয়, তবে ২৩১টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন আগরকর নির্বাচক কমিটির নতুন চেয়ারম্যানের পদেও বসতে পারেন।

বিসিসিআই নির্বাচক নিয়োগের ক্ষেত্রে আঞ্চলিক পদ্ধতি রদ করলেও একই জোন থেকে একাধিক নির্বাচক নিয়োগের সম্ভাবনা কঠিন। তাই মনিন্দর ও চেতনের মধ্যে পারস্পরিক লড়াই চলতে পারে একটি পদের জন্য।

অন্যদিকে, পূর্বাঞ্চল থেকে শিবসুন্দর দাস ইতিমধ্যেই আবেদন জানিয়েছেন জাতীয় নির্বাচক হতে চেয়ে। তাঁর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অভিজ্ঞতা নিতান্ত অবহেলা করার মতো নয়। তবে ওড়িশা থেকে ইতিমধ্যেই জুনিয়র নির্বাচক কমিটিতে রয়েছেন দেবাশিস মোহান্তি। তাই একই রাজ্য থেকে জুনিয়র ও সিনিয়র নির্বাচক কমিটিতে দু'জনকে নাও রাখতে পারে বিসিসিআই।

এক্ষেত্রে বাংলার কেউ আবেদন করলে তাঁকে প্রাধান্য দেওয়া হতে পারে। রণদেব বসু নির্বাচক হতে চেয়ে আবেদন করতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে।

বন্ধ করুন