চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ট্রফি হাতে লরেঞ্জো। ছবি- Action Images
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ট্রফি হাতে লরেঞ্জো। ছবি- Action Images

Covid-19: মৃত্যু প্রাক্তন রিয়াল সভাপতির

লরেঞ্জো সভাপতি থাকাকালীন রিয়াল তিন দশকের খরা কাটিয়ে দু'বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতে।

করোনা ভাইরাসের কবলে পড়েছেন বিশ্বের প্রায় ৩ লক্ষ মানুষ। মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৩ হাজার। বাদ পড়েনি আন্তর্জাতিক ক্রীড়ামহল। আক্রান্ত বহু ক্রীড়াব্যক্তিত্ব। ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে ২১ বছর বয়সি স্প্যানিশ ফুটবল প্রশিক্ষক ফ্রান্সিস্কো গার্সিয়ার। এবার আন্তর্জাতিক ফুটবলমহলকে স্তব্ধ করে করোনার বলি হলেন প্রাক্তন রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট লরেঞ্জো স্যাঞ্জ।

৭৬ বছর বয়সি লরেঞ্জো করোনার উপসর্গ নিয়ে সপ্তাহের শুরুতেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন ছেলে ফার্নান্দো। রবিবার সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

রিয়ালের তরফে সরকারি বিবৃতিতে লরেঞ্জোর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়। সমবেদনা জানানো হয় তাঁর পরিবার-পরিজনের প্রতি। ১৯৯৫ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত পাঁচ বছর রিয়ালের প্রেসিডেন্ট ছিলেন লরেঞ্জো। মূলত তাঁর সময়েই রিয়াল মাদ্রিদ পুনরায় বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী ফুটবল ক্লাবের তকমা ফিরে পায়।

লরেঞ্জো সভাপতি থাকাকালীন রিয়াল তিন দশকের খরা কাটিয়ে দু'বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতে। এছাড়া তাঁর সময়ে মাদ্রিদ একবার ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপ, একবার লা লিগা খেতাব, একবার স্প্যানিশ সুপার কাপ, এবং একটি বাস্কেটবল লিগের ট্রফি ঘরে তোলে।


আরও দু'বার প্রেসিডেন্ট পদের দৌড়ে ছিলেন লোরেঞ্জো। শেষমেষ তাঁকে পিছনে ফেলে দেন ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ ও রামন কালডেরন।

করোনা আতঙ্ক গোটা বিশ্বকে গ্রাস করলেও স্পেনে এর প্রভাব ব্যাপক। ইতিমধ্যেই সেখানে দেড় হাজারের কাছাকাছি মানুষ মারা গিয়েছেন করোনা আক্রান্ত হয়ে।

বন্ধ করুন