বাড়ি > ময়দান > রামায়ণের এই চরিত্র থেকে অনুপ্রাণিত সেহওয়াগের ফুটওয়ার্ক
রামায়ণের এই চরিত্রকেই নিজের ব্যটিং অনুপ্রেরণা হিসেবে বর্ণনা করেন সেহওয়াগ। ছবি- টুইটার।
রামায়ণের এই চরিত্রকেই নিজের ব্যটিং অনুপ্রেরণা হিসেবে বর্ণনা করেন সেহওয়াগ। ছবি- টুইটার।

রামায়ণের এই চরিত্র থেকে অনুপ্রাণিত সেহওয়াগের ফুটওয়ার্ক

  • বীরু নিজেই জানালেন তাঁর ব্যাটিং স্টাইলের অনুপ্রেরণা আদৌ কোনও ক্রিকেটার নন, বরং পৌরাণিক এক চরিত্র।

টেকনিক্যালি নিশ্ছিদ্র, এমনটা বলা যাবে না কখনই। এমন কি ক্রিজে পায়ের নড়াচড়া নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে বহুবার। তা সত্ত্বেও টিম ইন্ডিয়ার অন্যতম সেরা ওপেনার হিসেবে ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে আলাদা করে নিজের জায়গা করে নিয়েছেন বীরেন্দ্র সেহওয়াগ।

আগ্রাসী মেজাজের জন্য ডেভিড ওয়ার্নারের মতো বহু তারকা ক্রিকেটারের অনুপ্রেরণা বীরু। তবে সেহওয়াগকে অনুপ্রাণিত করতেন কে, সেটা এতদিনে জানা গেল। সোশ্যাল মিডিয়ায় বীরু নিজেই জানালেন তাঁর ব্যাটিং ভঙ্গিমার অনুপ্রেরণা আদৌ কোনও ক্রিকেটার নন, বরং পৌরাণিক এক চরিত্র।

রামায়ণের এই চরিত্র রামের সেনার এক সেনানায়ক। বালির পুত্র অঙ্গদকেই নিজের ব্যাটিং অনুপ্রেরণা হিসেবে বর্ণনা করেন সেহওয়াগ।

টেলিভিশনে রামায়ণ ধারাবাহিকের একটি বিশেষ মুহূর্তের ছবি টুইটারে পোস্ট করেন বীরু, যেখানে রাবণের সভাসদরা চেষ্টা করেও অঙ্গদের পা নড়াতে পারছেন না। ছবির ক্যাপশনে সেহওয়াগ লেখেন, 'এখান থেকেই আমি আমার ব্যাটিং অনুপ্রেরণা সংগ্রহ করেছিলাম। পা নড়ানো মুশকিলই নয়, অসম্ভব। অঙ্গদ জি রকস।'

বিষয়টিকে দু'ভাবে বর্ণনা করা যায়। ক্রিজে সেহওয়াগ একবার সেট হয়ে গেলে তাঁকে লক্ষ্য থেকে নড়ানো যেত না। আবার নিতান্ত মজার ছলে বলা যায় যে, ব্যাট করার সময় ক্রিজে পায়ের নড়াচড়া বিশেষ চোখে পড়ত না বীরুর।

বন্ধ করুন