বাংলা নিউজ > ময়দান > আর কখনও আফ্রিদিকে সাহায্য নয়, পাক তারকাকে তুলোধোনা ভাজ্জি-যুবির

করোনা মহামারির মাঝে শাহিদ আফ্রদির ফাউন্ডেশনের সেবামূলক কাজকর্মের প্রশংসা করেছিলেন যুবরাজ ও হরভজন সিং। একই সঙ্গে তাঁরা পাক অল-রাউন্ডারের ফাউন্ডেশনে অনুরাগীদের অর্থ দান করার আবেদনও জানিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। যার জন্য দুই ভারতীয় ক্রিকেটারকে নেটিজেনদের রোষের মুখেও পড়তে হয়।

নিছক মানবিকতার খাতিরে আফ্রিদি ও তাঁর ফাউন্ডেশনের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন ভাজ্জি ও যুবি। মহৎ উদ্দেশ্যে প্রতিবেশী দেশকে সমর্থন করার জন্য কোনও হীনমন্যতা ছিল না দুই ভারতীয় তারকার। তবে এখন যুবরাজ ও হরভজন দু'জনেরই মনে হচ্ছে যে, বোধহয় ভুল হয়ে গিয়েছিল। মানুষের পাশে দাঁড়ানোর ভুল নয়, ভুলটা ছিল আফ্রিদিকে সমর্থন করা।

ভাজ্জির মত, যে মানুষটা তাঁর দেশ ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটু কথা বলেন, তাঁর সঙ্গে বন্ধুত্ব রাখার কোনও প্রশ্নই নেই। যুবিও কার্যত একই সুরে আফ্রিদির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা জানান।

পাক অধিকৃত কাশ্মীরে দাঁড়িয়ে আফ্রিদি যেভাবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করেন, তাঁর প্রেক্ষিতে হরভজন বলেন, ‘আমি ভাবতাম আফ্রিদি আমাদের বন্ধু। তবে এটা বন্ধুর মতো আচরণ কখনই নয়। এটা অভদ্রতা। ওর উচিত সীমার মধ্যে থাকা। দূর্ভাগ্যের বিষয় হল, ও ভারত এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জি’কে নিয়ে অবিবেচকের মতো কথাবার্তা বলছে, যা মেনে নেওয়া কোনওভাবেই সম্ভব নয়।'

ভাজ্জি আরও বলেন, ‘করোনা মহামারির সময় মানুষ যেভাবে কষ্ট পাচ্ছেন, তাতে নিছক মানবিকতার খাতিরে সরল বিশ্বাস থেকে ওর ডাকে সাড়া দিয়েছিলাম। তবে এর পর থেকে ওর সঙ্গে আর কোনও সম্পর্ক নেই। কোনও বার্তা বা সাহায্যের আবেদনও নয়। আফ্রিদির শেখা উচিত কীভাবে অন্যদের সম্মান দিতে হয়।’

একদা আফ্রদির ফাউন্ডেশনের হয়ে সাহায্য প্রার্থনা করা যুবরাজ টুইটে লেখেন, ‘আমাদের সম্মানীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জি’কে নিয়ে আফ্রিদির মন্তব্য অত্যন্ত হতাশাজনক। একজন দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে, যে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছে, এমন মন্তব্য মেনে নেওয়া আমার পক্ষে কোনওভাবেই সম্ভব নয়। মানবিকতার খাতিরেই তোমার আবেদনে সাড়া দিয়েছিলাম। তবে আর কখনও নয়। জয় হিন্দ।'

উল্লেখ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় এক ভাইরাল ভিডিওয় পাক অধিকৃত কাশ্মীরে দাঁড়িয়ে আফ্রিদিকে বলতে শোনা যায় যে, নরেন্দ্র মোদীর মনে ও মাথায় গুরুতর অসুখ রয়েছে। আফ্রিদির এই মন্তব্যের পালটা দিয়ে তাঁকে জোকার বলতেও পিছপা হননি প্রাক্তন ভারতীয় তারকা গৌতম গম্ভীর।

বন্ধ করুন