বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > রশিদদের বিরুদ্ধে বোল্ড ও এলবিডব্লিউ হওয়ার নয়া নজির স্কটল্যান্ডের
উইকেট নেওয়ার পর রশিদের উচ্ছ্বাস। ছবি- পিটিআই (PTI)
উইকেট নেওয়ার পর রশিদের উচ্ছ্বাস। ছবি- পিটিআই (PTI)

রশিদদের বিরুদ্ধে বোল্ড ও এলবিডব্লিউ হওয়ার নয়া নজির স্কটল্যান্ডের

  • বিশ্বকাপে এমন নজির খুশি করবে না কোনও দলকেই।

শুভব্রত মুখার্জি

আমিরশাহির মাটিতে আফগানিস্তান দলের হাতে যে স্পিন বোলিং শক্তি রয়েছে তা যেকোনও দলের পক্ষে বিপদের কারণ হয়ে উঠতে পারে। সুপার-১২'এর প্রথম ম্যাচেই তারা বুঝিয়ে দিল সেটা। আফগান স্পিনার ত্রয়ীর সামনে পড়ে একেবারে নাস্তানাবুদ হতে হল স্কটল্যান্ডের ব্যাটারদের।

১৯১ রানের জয়ের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে স্কটিশরা মাত্র ৬০ রানে অল-আউট হয়ে যায়। তাদের দশটি উইকেটের মধ্যে নটি উইকেট আফগান বোলাররা তুলে নেন হয় বোল্ড না হয় এলবিডব্লিউতে। পুরুষ টি-২০ ক্রিকেটের ইতিহাসে এটি নয়া নজির। স্বাভাবিকভাবেই এই লজ্জার নজিরের শরিক হওয়া স্কটিশ ব্যাটারদের জন্য সময়টা যে কতটা কঠিন ছিল তা সহজেই অনুমেয়।

এদিন প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ঝড়ের গতিতে রান তুলতে থাকে আফগানরা। প্রথম উইকেটে পাওয়ার প্লে'র মধ্যেই তারা ৫৪ রান তুলে ফেলে। ওপেনার আহমেদ শেহজাদ ১৫ বলে ২২ রান করে আউট হন। অপর ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাই ৩০ বলে ৪৪ রানের এক মারকাটারি ইনিংস উপহার দেন। রহমানুউল্লাহ গুরবাজ ৩৭ বলে ৪৬ রান করেন এবং নাজিবুল্লাহ জাদরান ৩৪ বলে ৫৯ রান করে এদিন আফগানিস্তান দলকে ২০ ওভারে ১৯০ রানে পৌঁছে দেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে মুজিব উর রহমানের স্পিন ঘূর্ণিতে নাস্তানাবুদ হয়ে যায় স্কটরা। মুজিব একাই ৫ উইকেট তুলে নিয়ে স্কটদের ব্যাটিংয়ের মেরুদন্ডটাই কার্যত ভেঙে দেন। বাকি কাজটা সম্পন্ন করেন রশিদ খান। তিনি ৪ উইকেট নিয়ে স্কটল্যান্ডকে ৬০ রানে অলআউট করে দেন। রশিদ, মুজিবদের স্পিন ঘূর্ণিতে হয় বোল্ড না হয় এলবিডব্লিউ আউট হয়ে লজ্জার নজিরের শরিক হলেন স্কটিশ ব্যাটাররা।

বন্ধ করুন