বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs NZ: স্বপ্নের ফর্মে শুভমন,কোহলির রেকর্ড ভাঙলেন, স্পর্শ করলেন পাক অধিনায়ককে

IND vs NZ: স্বপ্নের ফর্মে শুভমন,কোহলির রেকর্ড ভাঙলেন, স্পর্শ করলেন পাক অধিনায়ককে

নিজে সেঞ্চুরি করে রোহিতকে কুর্নিশ জানালেন শুভমন।

২০১৬-তে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের এক দিনের সিরিজ খেলেছিল পাকিস্তান। সেই সিরিজের তিন ম্যাচেই সেঞ্চুরি করেছিলেন বাবর। ১২০, ১২৩ এবং ১১৭ রান করেছিলেন বাবর আজম। পাক অধিনায়কের তিন ম্যাচে তাঁর মোট রান ছিল ৩৬০। কিউয়িদের বিরুদ্ধে শুভমনও মোট ৩৬০ রান করেন।

শুভমন গিল যেন স্বপ্নের ছন্দে রয়েছেন। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে শেষ ওডিআই-এ সেঞ্চুরির পর, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ওডিআই-এ দ্বিশতরান করেন শুভমন গিল। দ্বিতীয় ম্যাচে অপরাজিত ৪০ করেন। তৃতীয় ম্যাচে ফের সেঞ্চুরি। তাও বিধ্বংসী মেজাজে।

৯ দিনের মধ্যেই শুভমন ভেঙে দিলেন বিরাট কোহলির রেকর্ড। ছুঁয়ে ফেললেন বাবর আজমকে। তিন ম্যাচের দ্বিপাক্ষিক একদিনের সিরিজে এত দিন সবচেয়ে বেশি রান করার নজির ছিল বাবরের। তাঁকে ছুঁয়ে ফেললেন শুভমন। তবে আফসোস একটাই। আর একটা রান বেশি করলেই, বাবরের সেই রেকর্ডও ভেঙে দিতে পারতেন তিনি।

২০১৬-তে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের এক দিনের সিরিজ খেলেছিল পাকিস্তান। সেই সিরিজের তিন ম্যাচেই সেঞ্চুরি করেছিলেন বাবর। ১২০, ১২৩ এবং ১১৭ রান করেছিলেন বাবর আজম। পাক অধিনায়কের তিন ম্যাচে তাঁর মোট রান ছিল ৩৬০। কিউয়িদের বিরুদ্ধে শুভমনও মোট ৩৬০ রান করেন।

আরও পড়ুন: ৩ উইকেট নিলেও রান দেওয়ার সেঞ্চুরি করলেন ডাফি, গড়লেন লজ্জার নজির

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচে শুভমন করেছেন যথাক্রমে ২০৮, ৪০ এবং ১১২ রান। রানের ইনিংস খেলেন। দ্বিতীয় ম্যাচে অপরাজিত থাকেন ৪০ রানে। তৃতীয় ম্যাচে করলেন ১১২। অর্থাৎ শুভমনের মোট ৩৬০ রান হল।

পাশাশি তিনি ভাঙলেন বিরাট কোহলির রেকর্রডও। তিন ম্যাচের দ্বিপাক্ষিকসবচেয়ে বেশি রান ছিল কোহলির। এ বার সেই রেকর্ড ভেঙে নয়া নজির গড়লেন শুভমন। এই বছরের শুরুতেই শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ৩ ম্যাচের ওডিআই সিরিজে কোহলি করেছিলেন মোট ২৮৩ রান (১১৩, ৪, ১৬৬)। কিন্তু সেই নজির ৯ দিনও টিকল না। ভেঙে দিলেন শুভমন।

আরও পড়ুন: সেঞ্চুরির পাশাপাশি ছক্কা হাঁকিয়ে নজির রোহিতের, পিছনে ফেললেন জয়সূর্যকে

আগ্রাসী মেজাজে এ দিন শুভমন সেঞ্চুরি হাঁকান। ৭২ বলে শতরান করেন শুভমন। ভারতীয় ইনিংসের ২৬তম ওভারের শেষ বলে ব্লেয়ার টিকনারকে চার মেরে শতরান পূর্ণ করেন তিনি। ৭৮ বলে ১১২ করে শেষ পর্যন্ত টিকনারের বলে কনওয়েকে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন শুভমন। তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল ১৩টি চার এবং পাঁচটি ছয়ে। এক দিনের ক্রিকেটে চতুর্থ শতরান হয়ে গেল ২৩ বছরের ব্যাটারের। আন্তর্জাতিক এক দিনের ম্যাচে পাঁচটি অর্ধশতরানও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে।

এ দিন প্রথমে ব্যাট করে শুভমন এবং রোহিত শর্মার (৮৫ বলে ১০১ রান) ঝড়ে ভারতের বড় রান তোলার জমিটা শক্ত হয়। এ ছাড়া ৩৮ বলে ৫৪ করেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। বিরাট কোহলি ৩৬ রান করেন। ভারত ৯ উইকেটে ৩৮৫ রান করে।

পাহাড় সমান রান তাড়া করতে নেমে প্রথমেই (২ বলে ০) ফিন অ্যালেনের উইকেচ হারিয়ে চাপে পড়েছিল নিউজিল্যান্ড। তবে ডেভন কনওয়ে এবং হেনরি নিকোলাস মিলে হাল ধরেন। ১০০ বলে ১৩৮ করেন কনওয়ে। ৪০ বলে ৪২ করেন হেনরি নিকোলাস। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। জলে গিয়েছে কনওয়ের সেঞ্চুরি। ২৯৫ রানে অল আউট হয়ে যায় কিউয়িরা। ৯০ রানের বড় ব্যাবধানে ম্যাচ জেতে ভারত।

বন্ধ করুন