বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল ২০২০ > IPL 2020: 'ব্যবহার না করলে প্রযুক্তির দরকার কী?' শর্ট রান বিতর্কে BCCI-কে ট্যাগ করে ক্ষোভপ্রকাশ প্রীতির
'ব্যবহার না করলে প্রযুক্তির দরকার কী?' শর্ট রান বিতর্কে চূড়ান্ত ক্ষুব্ধ প্রীতি (ছবি সৌজন্য টুইটার ও পিটিআই ফাইল)
'ব্যবহার না করলে প্রযুক্তির দরকার কী?' শর্ট রান বিতর্কে চূড়ান্ত ক্ষুব্ধ প্রীতি (ছবি সৌজন্য টুইটার ও পিটিআই ফাইল)

IPL 2020: 'ব্যবহার না করলে প্রযুক্তির দরকার কী?' শর্ট রান বিতর্কে BCCI-কে ট্যাগ করে ক্ষোভপ্রকাশ প্রীতির

  • হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচকে ছাপিয়ে শর্ট রান নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়।

শর্ট রান বিতর্কের রেশ ক্রমশ বাড়ছে। এবার তা নিয়ে চূড়ান্ত উষ্মা প্রকাশ করলেন কিংস ইলেভন পঞ্জাবের মালিক প্রীতি জিন্টা। তাঁর প্রশ্ন, প্রযুক্তি থাকা সত্ত্বেও কেন তা ব্যবহার করা হবে না?

'সুপার সানডে' মহারণে সুপার ওভারে দিল্লি ক্যাপিটালসের কাছে পরাজিত হয় পঞ্জাব। কিন্তু সেই হাড্ডাহাড্ডি ম্যাচকে ছাপিয়ে শর্ট রান নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়। ১৮.৩ ওভারে কাসিগো রাবাডার নিখুঁতে ইয়র্কারে ব্যাট ঠেকিয়ে দু'রানের জন্য দৌড়ান মায়াঙ্ক আগরওয়াল। সেই রান পূরণও করেন। কিন্তু স্কোয়ার লেগ আম্পায়ান নীতিন মেনন দাবি করেন, প্রথম রান নেওয়ার সময় কিপারের দিকে ক্রিজে পুরোপুরি ব্যাট ঢোকাননি ক্রিস জর্ডন। সেজন্য শর্ট রান হিসেবে ঘোষণা করেন আম্পায়ার। সেই সময় ১০ বলে ২১ রান বাকি ছিল।

কিন্তু টিভি রিপ্লেতে পরিষ্কার দেখা যায়, ক্রিজ টপকেছেন জর্ডন। স্বভাবতই তা বৈধ রান। আর সেই রান যদি দেওয়া হত, তাহলে নির্ধারিত ২০ ওভারেই ম্যাচ জিতে যেত পঞ্জাব। সুপার ওভারে ম্যাচই গড়াত না। আম্পায়ারের সেই ভুল নিয়ে তুমুল ক্ষোভ প্রকাশ করেন বীরেন্দ্র সেহওয়াগ, আকাশ চোপড়ারা।

কোনও রাখঢাক না করে ক্ষোভ উগরে দেন কিংস ইলেভন পঞ্জাবের মালিক। সেহওয়াগের টুইট রিটুইট করে তিনি বলেন, 'মহামারীর সময় উৎসাহের সঙ্গে আমি এলাম, হাসিমুখে ছ'দিনের কোয়ারেন্টাইনে কাটালাম এবং পাঁচটি কোভিড পরীক্ষা করলাম। কিন্তু একটা শর্ট রান আমায় প্রচণ্ড আঘাত করল। যদি ব্যবহারই না করা যেতে পারে, তাহলে প্রযুক্তির কী প্রয়োজন আছে? এটাই সময়, ভারতীয় বোর্ড (বিসিসিআই) নয়া নিয়ম চালু করুক। প্রতি বছর এটা হতে পারে না।'

পরে সরকারিভাবে কিংস ইলেভন পঞ্জাবের তরফে শর্ট রানের বিরুদ্ধে আবেদন করা হয়েছে। জানানো হয়েছে, আরও ভালো সিদ্ধান্তের জন্য প্রযুক্তি ব্যবহারের আর্জি জানিয়েছেন খেলোয়াড়রা।

বন্ধ করুন