উইলিয়ামস ও কোহলির নোটবুক সেলিব্রেশন।
উইলিয়ামস ও কোহলির নোটবুক সেলিব্রেশন।

নোটবুক সেলিব্রেশন: বিরাটের সঙ্গে ডুয়েলের রহস্য উন্মোচন করলেন উইলিয়ামস

  • ২০১৭-য় জামাইকায় নোটবুক সেলিব্রেশন করেন উইলিয়ামস। ২০১৯-এ হায়দরাবাদে তা ফিরিয়ে দেন কোহলি।

‘মুখ বন্ধ রেখে ব্যাট করো। শিশুদের মতো আচরণ করছো।’ ঠিক এভাবেই কোহলিকে শান্ত করার চেষ্টা করেছিলেন কেসরিক উইলিয়ামস। তবে হিতে বিপরীত হয় কোহলি ভুল বোঝায়। আসলে উইলিয়ামসের পুরো কথা কানে যায়নি বিরাটের। শিশুদের প্রসঙ্গ উত্থাপিত হওয়ার আগেই ক্রিজে ফিরে গিয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক।

গতবছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে ভারতের টি-২০ সিরিজে মুখ্য আলোচ্য বিষয় ছিল কোহলির সঙ্গে উইলিয়ামসের ডুয়েল। ২০১৭ সালে কোহলির উইকেট নিয়ে উইলিয়ামস নোটবুক সেলিব্রেশন করেছিলেন জামাইকায়। বিষয়টা মাথায় ছিল বিরাটের। গতবছর হায়দরাবাদে সিরিজের প্রথম টি-২০ ম্যাচে উইলিয়ামসকে যথেচ্ছ পেটানোর পর কোহলি নোটবুক সেলিব্রেশন ফিরিয়ে দিয়েছিলেন ক্যারিবিয়ান তারকাকে।

ঘটনার স্মৃতিচারণায় উইলিয়ামস বলেন, ‘কোহলি অত্যন্ত পেশাদার। একবারের জন্যও অসম্মানজনক কথাবার্তা বলে নি। তবে ২০১৭-র ঘটনা ২০১৯-এও ভোলেনি দেখে আমি একটু অবাক হয়েছিলাম। হায়দরাবাদে ব্যাট করার সময় ও প্রতি মুহূর্তে কিছু না কিছু বলছিল। আমি ওকে বলেছিলাম মুখটা বন্ধ রেখে ব্যাট করে যাও। তুমি তো দেখছি শিশুদের মতো আচরণ করছো। দুর্ভাগ্যের বিষয় এই যে, আমি ও বিরাট নিজেদের প্রান্তে এগিয়ে যাওয়ায় শিশুদের প্রসঙ্গটা ওর কানে যায়নি। তারপরে আমাকে ছক্কা মেরে ও নোটবুক সেলিব্রেশন করে।’

উইলিয়ামস পরক্ষণেই বলেন, ‘পরের দিন ভারতের সব সংবাদমাধ্যমে আমি শিরোনামে ছিলাম। তবে সত্যি বলতে কি, বিষয়টা আমার মোটেও ভালো লাগেনি। তাই সুযোগের অপেক্ষায় ছিলাম বিরাটকে পালটা দেওয়ার। পরের ম্যাচে ওর উইকেট তুলে নিতে পেরে তাই মুখে আঙুল দিয়ে সেলিব্রেট করেছিলাম। মাঠের ঘটনা নিয়ে মাঠের বাইরে আমাদের মধ্যে কোনও তিক্ততা ছিল না। আবার বলছি, বিরাট কখনই অসম্মানজনক আচরণ করেনি।'

বন্ধ করুন