বাংলা নিউজ > ময়দান > ক্রিকেটারদের থেকে বেশি বেতন PCB কর্তাদের, চোখ কপালে উঠবে অফিসিয়ালদের মাসিক পারিশ্রমিক জানলে
রামিজ রাজা ও বাবার আজম। ছবি- টুইটার/রয়টার্স।

ক্রিকেটারদের থেকে বেশি বেতন PCB কর্তাদের, চোখ কপালে উঠবে অফিসিয়ালদের মাসিক পারিশ্রমিক জানলে

  • ক্রিকেটারদের জন্যই বোর্ডের আয়, অথচ বাবর আজমদের থেকে বেশি অর্থ পকেটে ঢোকে পাকিস্তানের বোর্ড কর্তাদের।

ক্রিকেটারদের জন্য যাবতীয় আয় বোর্ডের। অথচ সেই ক্রিকেটারদের থেকেও বেশি বেতন পান পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা। সম্প্রতি ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির স্ট্যান্ডিং কমিটিতে পেশ করা হয় পিসিবি অফিসিয়ালদের পারশ্রমিক। যা দেখে চোখ কপালে ওঠার উপক্রম পাক ক্রিকেটমহলের। বেশিরভাগ অফিসিয়ালের মাসিক বেতন বাবর আজমদের থেকেও বেশি।

বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা এ, বি ও সি গ্রেডের ক্রিকেটাররা প্রতি মাসে পারিশ্রমিক পান যথাক্রমে ১০ লক্ষ, ৭.৫ লক্ষ ও ৪.৫ লক্ষ পাকিস্তানি রুপি। অথচ পিসিবি কর্তাদের অনেকেরই মাসিক বেতন ১০ লক্ষের উপর।

পিসিবি অফিসিয়ালদের মধ্যে সব থেকে বেশি বেতন পান বিদেশি ফিজিও ক্লিফ ডিকন। পাকিস্তানি মুদ্রায় তাঁর মাসিক পারিশ্রমিক ২০ লক্ষ রুপির বেশি। হেড কোচ সাকলিন মুস্তাক পেতেন মাসে ১৩ লক্ষ। নির্বাচক প্রধান মহম্মদ ওয়াসিমের বেতন মাসিক ১০ লক্ষ রুপি। মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন ডিরেক্টর সামি বার্নির বেতন মাসে ১৩ লক্ষ। সম পরিমান বেতন পান ডিরেক্টর অফ হাই পারফর্ম্যান্স নদীম খান। ডিরেক্টর অফ ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট অপারেশন জাকির খান মাসে ৮.৫ লক্ষ রুপি বেতন পান।

চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার জাভেদ মুর্তাজা, চিফ অপারেটিং অফিসার সলমন নাসের, চিফ মেডিক্যাল অফিসার নাজিবুল্লাহ মাসে ১২ লক্ষ টাকার বেশি বেতন পান। ডিরেক্টর হিউম্যান রিসোর্স সেরেনা ও ডিরেক্টর সিকিউরিটি অ্যান্ড অ্যান্টি কোরাপশন আসিফ মেহমুদ মাসে ৮.৫ লক্ষ রুপি বেতন পান।

এছাড়া জিএম লজিস্টিক্স, জিএম ফিনান্স অ্যান্ড অ্যাকাউন্টসের মতো অফিসিয়ারলা প্রতি মাসে ৬ লক্ষ রুপি বেতন পেয়ে থাকেন। মাসিক বেতনের বাইরে পিসিবি কর্তারা গাড়ি, জ্বালানি ও মোবাইল বিলের মতো খরচও পেয়ে থাকেন বোর্ড থেকে।

বন্ধ করুন