বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > সোনাজয়ের প্রত্যাশা নিয়ে টোকিও পৌছানো ভিনেশকে খালি হাতেই ফেরাচ্ছে অলিম্পিক্স
ভিনেশকে খালি হাতেই ফেরাচ্ছে অলিম্পিক্স (ছবি:রয়টার্স) (REUTERS)
ভিনেশকে খালি হাতেই ফেরাচ্ছে অলিম্পিক্স (ছবি:রয়টার্স) (REUTERS)

সোনাজয়ের প্রত্যাশা নিয়ে টোকিও পৌছানো ভিনেশকে খালি হাতেই ফেরাচ্ছে অলিম্পিক্স

  • ভিক্টরের শক্তির সামনেই কার্যত ভিনেশকে হার মানতে হয়। তারপরে তার ব্রোঞ্জ পদক পাওয়ার যে আশাটুকু বেঁচে ছিল তাও শেষ হয়ে যায় যখন ভিক্টর নিজেই সেমিফাইনালে হেরে ছিটকে গেলেন। ফলে টোকিও থেকে শূন্য হাতেই ফিরতে হচ্ছে ভিনেশকে।

শুভব্রত মুখার্জি: ভারতীয় কুস্তি বা বলা ভাল মহিলা কুস্তির ইতিহাসে অন্যতম তারকা ভিনেশ ফোগাট। টোকিও গেমসের শুরুর আগে থেকেই ভারতীয় স্কোয়াডের থেকে ৮-১০ টি পদক আশা করা হয়েছিল। সেই মেডেল প্রত্যাশীদের তালিকায় একেবারে সবার উপরে স্থান ছিল ভিনেশের। টোকিও আসার আগে থেকে যে ফর্মে ছিলেন তিনি সকলের আশা ছিল তিনি পদক আনবেনই। বৃহস্পতিবার শুরুটা করেছিলেন অসাধারণভাবে। তবে কোয়ার্টারে হেরে যাওয়াতে তার সোনার আশা শেষ হয়ে যায়। অনেকে ভেবেছিলেন রেপেচাজ বিভাগে তিনি ব্রোঞ্জ জিততে পারেন যদি তাকে হারানো প্রতিযোগী ফাইনালে চলে যান। কিন্তু ভিক্টর ভানেসা সেমিফাইনালে হেরে যাওয়াতে সেই আশা শেষ হয়ে গেল।

এদিন শুরুটা দারুণ করেছিলেন ভিনেশ। তিনি ৭-১ ফলে হারিয়ে দেন ছয় বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ান সোফিয়া ম্যাটসনকে। উল্লেখ্য ২০১৬ সালে রিও গেমসে ব্রোঞ্জ পদ পেয়েছিলেন সোফিয়া। এর আগে ২০১৯ সালে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে এই সুইডিশ কুস্তিগীরকে হারিয়েছিলেন।

এরপর কোয়ার্টারে তার মুখোমুখি হয় বেলারুশের ভিক্টর ভানেসার। যাকে এই বছরের গোড়ার দিকে ইউক্রেনে এক প্রতিযোগিতায় 'ফলের' সুবাদে হারিয়েছিলেন ভিনেশ। সেই লজ্জা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে আজ ভিনেশকে মাত দিলেন ভিক্টর। নিজের পা কে সবসময় সোজা রাখলেন। ভিনেশের ক্রমাগত চাপের পরেও তিনি তাকে নীলডাউন করতে ব্যর্থ হয় ভারতীয় প্রতিযোগী। আজ ভিক্টরের শক্তির সামনেই কার্যত ভিনেশকে হার মানতে হয়। তারপরে তার ব্রোঞ্জ পদক পাওয়ার যে আশাটুকু বেঁচে ছিল তাও শেষ হয়ে যায় যখন ভিক্টর নিজেই সেমিফাইনালে হেরে ছিটকে গেলেন। ফলে টোকিও থেকে শূন্য হাতেই ফিরতে হচ্ছে ভিনেশকে।

বন্ধ করুন