বাংলা নিউজ > ময়দান > Ranji Trophy: ডেঞ্জার ম্যানদের ফিরিয়ে দিয়েছেন সায়ন-শাহবাজ, রঞ্জির সেমিফাইনালের গন্ধ পাচ্ছে বাংলা
সৌরভ তিওয়ারিকে ফিরিয়ে উচ্ছ্বসিত শাহবাজ আহমেদ। ছবি- স্ক্রিনগ্র্যাব।

Ranji Trophy: ডেঞ্জার ম্যানদের ফিরিয়ে দিয়েছেন সায়ন-শাহবাজ, রঞ্জির সেমিফাইনালের গন্ধ পাচ্ছে বাংলা

  • বাংলার দুই বোলারের ধাক্কায় বেসামাল ঝাড়খণ্ডের ইনিংস। সেমিফাইনের হাতছানি বাংলা শিবিরে।

দু-একজন নয়, বরং ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে রঞ্জির কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলার হয়ে যাঁরাই ব্যাট করতে নেমেছেন, বড় রানের ইনিংস খেলে তবেই মাঠ ছেড়েছেন। সস্তায় তো নয়ই, এমনকি হাফ-সেঞ্চুরির আগে ক্রিজ ছাড়েননি কেউই।

তবে বল হাতে আলাদা করে নজর কাড়েন সায়ন শেখর মণ্ডল ও শাহবাজ আহমেদ। শুধু বল হাতে বলা ভুল হবে, কেননা ব্যাট হাতেও হাফ-সেঞ্চুরি করেন বাংলার দুই তারকা। সুতরাং বলা ভালো যে, তৃতীয় দিনে সায়ন ও শাহবাজের অল-রাউন্ড পারফর্ম্যান্সে ভর করে সেমিফাইনালের টিকিট দেখতে পাচ্ছে বাংলা।

গত দিনের ৫ উইকেটে ৫৭৭ রানের পর থেকে তৃতীয় দিনে খেলা শুরু করে বাংলা। তারা ৭ উইকেটে ৭৭৩ রান তুলে তাদের প্রথম ইনিংস ডিক্লেয়ার করে। মনোজ ৭৩ রান করে আউট হন। শাহবাজ আউট হন ব্যক্তিগত ৭৮ রানে। সায়ন শেখর ৫৩ ও আকাশ দীপ ৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন। সুশান্ত মিশ্র ৩টি ও শাহবাজ নদিম ২টি উইকেট নেন।

পালটা ব্যাট করতে নেমে ঝাড়খণ্ড ইনিংসের শুরুটা মন্দ করেনি। তারা ওপেনিং জুটিতে ৭২ রান তোলে। তবে সায়ন আক্রমণে আসার পরে নিয়মিত ব্যবধানে উইকেট হারাতে থাকে ঝাড়খণ্ড। শেষ বেলায় ঝড়খণ্ড শিবিরে জোড়া ধাক্কা দেন শাহবাজ আহমেদ।

আরও পড়ুন:- Ranji Trophy: রঞ্জি ট্রফির ইতিহাসে প্রথমবার কর্নাটককে হারাল উত্তরপ্রদেশ, সেমিফাইনালের টিকিট রিঙ্কুদের হাতে

আপাতত তৃতীয় দিনের শেষে ঝাড়খণ্ড তাদের প্রথম ইনিংসে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১৩৯ রান সংগ্রহ করেছে। প্রথম ইনিংসের নিরিখে বাংলার থেকে এখনও ৬৩৪ রানে পিছিয়ে রয়েছে তারা।

আরও পড়ুন:- Ranji Trophy: আইপিএলের চমক জারি রঞ্জিতেও, কোয়ার্টার ফাইনালে দুর্দান্ত ইনিংস RCB-র রজত পতিদারের

কুমার দেওব্রত ১১, নাজিম সিদ্দিকি ৫৩, উৎকর্ষ সিং ৫, সৌরভ তিওয়ারি ৩৩ ও কুমার কুশাগ্র ২ রান করে আউট হয়েছেন। বিরাট সিং ১৭ ও অনুকূল রায় ১ রানে অপরাজিত রয়েছেন। সায়ন ৩২ রানে ৩টি উইকেট নেন। শাহবাজ ৫ রানে ২টি উইকেট দখল করেন। সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করতে হলে বাংলাকে প্রথম ইনিংসে লিড নিতে হবে, যা কেবল সময়ের অপেক্ষা বলে মনে হচ্ছে।

বন্ধ করুন