বাংলা নিউজ > ময়দান > থাইল্যান্ডের কঠোর করোনা বিধিতে ধাক্কা খাচ্ছে অলিম্পিকের প্রস্তুতি, ক্ষোভপ্রকাশ সাইনার
সাইনা নেহওয়াল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
সাইনা নেহওয়াল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

থাইল্যান্ডের কঠোর করোনা বিধিতে ধাক্কা খাচ্ছে অলিম্পিকের প্রস্তুতি, ক্ষোভপ্রকাশ সাইনার

  • প্রশিক্ষক, ফিজিয়োদের সঙ্গেও নাকি দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না বলে দাবি।

শুভব্রত মুখার্জি

করোনাভাইরাসের ফলে প্রায় আট মাস প্রতিযোগিতামূলক ব্যাডমিন্টন থেকে দূরে আছেন ভারতীয় শাটলাররা। সামনেই আর কয়েকমাস বাদে শুরু হবে অলিম্পিক প্রতিযোগিতা। ফলে এবার করোনা প্রোটোকল মেনে ধীরে ধীরে কোর্টে ফিরছেন শাটলাররা। সেই উদ্দেশ্য ইতিমধ্যে থাইল্যান্ডে পৌঁছে গিয়েছেন তাঁরা।

যদিও একাংশের দাবি, থাইল্যান্ডে আসন্ন প্রতিযোগিতার প্রস্তুতি নিতে গিয়ে প্রশিক্ষক, ফিজিয়োদের সঙ্গেও নাকি দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না। রয়েছে একগাদা বিধিনিষেধও। এজন্য বিশ্ব ব্যাডমিন্টন সংস্থাকে অবিলম্বে হস্তক্ষেপ করার কথা বলেছেন ক্ষুব্ধ সাইনা নেহওয়াল। তিনি এই বিষয়ে একাধিক টুইট করেন। করোনার জন্য থাইল্যান্ডে জৈব সুরক্ষা বলয়ে যে বিধিনিষেধ চালু করেছে বিশ্ব ব্যাডমিন্টন সংস্থা, তাতে তিনি অসন্তুষ্ট। তিনি টুইট করেন, ‘করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ আসার পরেও গোটা সফরে ফিজিয়ো, ট্রেনাররা আমাদের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না। চার সপ্তাহ কীভাবে এসব মেনে অনুশীলন করব! প্রতিযোগিতাতে সেরা প্রস্তুতি নিয়ে খেলতে চাই। দয়া করে এই বিষয়টি সমাধানের অনুরোধ করছি বিশ্ব ব্যাডমিন্টন সংস্থাকে।'

তিনি টুইটে আরও লিখেছেন, ‘গোটা দলের অনুশীলনের জন্য মাত্র এক ঘণ্টা সময় বরাদ্দ? জিমের জন্যও একই সময়। অলিম্পিক্সে যোগ্যতা অর্জনের জন্য মার্চ মাস খুব গুরুত্বপূর্ণ সময়। নিজেকে প্রস্তুতির মাধ্যমে সেরা জায়গায় নিয়ে যাওয়ার জন্য এগুলি যথেষ্ট নয়।’

বন্ধ করুন