বাংলা নিউজ > ময়দান > মার্ক বাউচার ও গ্রেম স্মিথের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ! তদন্তে নামল CSA
মার্ক বাউচার ও গ্রেম স্মিথের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু (ছবি:টুইটার)
মার্ক বাউচার ও গ্রেম স্মিথের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু (ছবি:টুইটার)

মার্ক বাউচার ও গ্রেম স্মিথের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ! তদন্তে নামল CSA

  • পল অ্যাডামস বলেছিলেন, তিনি যখন ক্রিকেট খেলতেন তখন তাকে ‘ব্রাউন’ বলে ডাকা হত। অ্যাডামস আরও বলেছিলেন যে অফ স্পিনার প্যাট সিমকক্সের জন্য তাকে দলের বাইরে রাখা হয়েছিল।

মার্ক বাউচার, গ্রেম স্মিথ এবং অন্যদের বিরুদ্ধে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন লেগ-স্পিনার পল অ্যাডামস অভিযোগ করেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটের অনেই তাঁকে নিয়ে বর্ণবাদী মন্তব্য করতেন। পল অ্যাডামসের এই অভিযোগের ভিত্তিতে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ডের ডিরেক্টর গ্রেম স্মিথ ও দলের হেড কোচ মার্ক বাউচারের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষের তদন্ত করা হবে। পল অ্যাডামস বলেছিলেন, তিনি যখন ক্রিকেট খেলতেন তখন তাকে ‘ব্রাউন’ বলে ডাকা হত। অ্যাডামস আরও বলেছিলেন যে অফ স্পিনার প্যাট সিমকক্সের জন্য তাকে দলের বাইরে রাখা হয়েছিল।

এই বিতর্ক মেটাতে এ বার তদন্তে নামতে বাধ্য হল দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড। বোর্ডের ক্রিকেট ডিরেক্টর গ্রেম স্মিথ ও হেড কোচ মার্ক বাউচারের বিরুদ্ধে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ উঠেছে। যদি সত্যতা প্রমাণিত হয়, তা হলে দু’জনকেই পদ ছাড়তে হতে পারে। বোর্ড এক বিবৃতিতে বলেছে, বর্ণবিদ্বেষকে সমর্থন করে না দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড। এর বিরুদ্ধে লড়াই করাটা দায়িত্ব বলেই মনে করে। তাই সিএসএ তার দুই কর্মী স্মিথ ও বাউচারের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করছে। পেশাদার আইনজীবীরা পুরো ব্যাপারটা খতিয়ে দেখবেন। তদন্ত চলাকালীন স্মিথ ও বাউচার নিজেদের পদে বহাল থাকবেন। বোর্ডের আশা, দ্রুত এই ব্যাপারটার নিষ্পত্তি হবে।

বর্ণবিদ্বেষ নিয়ে সারা বিশ্বে তুমুল আন্দোলন শুরু হওয়ার পর অনেকেই এর বিরুদ্ধে সকলেই নিজের নিজের কথা তুলে ধরছেন। অতীত কখনও বর্ণবিদ্বেষের শিকার হলে তা আর গোপন রাখছেন না কেউ। পল অ্যাডামসের মতো প্রাক্তন স্পিনার স্মিথ, বাউচার ও এবি ডি’ভিলিয়ার্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। ২৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট সিরিজ। কিন্তু, তার আগেই সমস্যা তৈরি হয়েছে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকায়।

বন্ধ করুন