বাংলা নিউজ > ময়দান > ভিডিয়ো: ম্যাচ শেষে গ্যালারিতে পাক-আফগান সমর্থকের মারামারি! সমালোচনায় শোয়েব আখতার
ম্যাচ শেষে গ্যালারিতে পাক-আফগান সমর্থকের মারামারি

ভিডিয়ো: ম্যাচ শেষে গ্যালারিতে পাক-আফগান সমর্থকের মারামারি! সমালোচনায় শোয়েব আখতার

  • আসলে রশিদ খানরা ম্যাচ হারার পরেই স্টেডিয়ামের মধ্যেই আফগানিস্তানের সমর্থকদের পাকিস্তানি সমর্থকদের উপর হামলা করতে দেখা যায়। আফগান সমর্থকদের স্টেডিয়ামের চেয়ার উপড়ে ফেলতে দেখা গেছে। এসব ভিডিয়ো ভাইরাল হওয়ার পর পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

ক্রিকেট মাঠে যখনই হাই ভোল্টেজ ম্যাচ দেখা যায়, ভক্তদের মধ্যে ঝামেলার পরিমানও বেড়ে যায়। একটি ক্লোস ম্যাচের পরেপরাজিত দল হতাশায় ডুবে যায়,অন্যদিকে বিজয়ী দলের ভক্তদের আনন্দ উদযাপন করতে দেখা যায়। কিন্তু বুধবার রাতে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের রোমাঞ্চকর ম্যাচের পর যে ছবি ও ভিডিয়ো সামনে এসেছে তা ক্রিকেটকে লজ্জায় ফেলে দিয়েছে। 

আসলে রশিদ খানরা ম্যাচ হারার পরেই স্টেডিয়ামের মধ্যেই আফগানিস্তানের সমর্থকদের পাকিস্তানি সমর্থকদের উপর হামলা করতে দেখা যায়। আফগান সমর্থকদের স্টেডিয়ামের চেয়ার উপড়ে ফেলতে দেখা গেছে। এসব ভিডিয়ো ভাইরাল হওয়ার পর পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

আরও পড়ুন… বেয়ারস্টোর বদলি হিসাবে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ দলে এলেন মর্গ্যান জমানার ব্রাত্য হেলস

শোয়েব আখতার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে ঘটনার একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আফগান ভক্তরা এটাই করছে। অতীতে বহুবার তাঁরা এমনটিই করেছেন। এটি একটি খেলা এবং খেলা উচিত এবং সঠিক চেতনায় নেওয়া উচিত। শফিক স্তানিকজাই আপনি যদি খেলায় এগিয়ে যেতে চান তবে আপনার ভক্ত এবং আপনার খেলোয়াড়দের কিছু জিনিস শিখতে হবে।’

ম্যাচ চলাকালীন আসিফ আলি ও ফরিদ আহমেদের মধ্যে ঝগড়ার কারণে শোয়েব আখতার এখানে আফগান খেলোয়াড়দের নাম নিয়েছেন। শেষ দুই ওভারে পাকিস্তানের জয়ের জন্য দরকার ছিল ২১ রান। দ্বিতীয় বলেই হ্যারিস রউফ আউট হয়ে গেলে পাকিস্তান পিছনের দিকে চলে যায়। আসিফ তখনও ক্রিজে ছিলেন,ওভারের চতুর্থ বলে তিনি লং অন এবং মিড-উইকেটের মধ্যে একটি ছক্কা মেরে পাকিস্তানের জয়ের সম্ভাবনা বাঁচিয়ে দেন।

আরও পড়ুন… মাহি হলে এমন মিস করতেন না, পন্তকে দেখে ধোনির জন্য বিলাপ করছেন বাদানি

তার পরের বলে ফরিদ আহমেদ স্লো বাউন্সারে আসিফ আলিকে ফাঁদে ফেলে শর্ট থার্ডম্যানে দাঁড়িয়ে করিম জানাতের হাতে ক্যাচ দেন। আসিফ আলিকে আউট করার পর, ফরিদ উৎসাহ আসিফের মুখের সামনে উদযাপন করেন,যার পরে পাকিস্তানি খেলোয়াড় রেগে যান। মাঠে আসিফ আলি ফরিদকে ধাক্কা দেন এবং পরে মারতে যান। দুই খেলোয়াড়ের মধ্যে এই ক্রমবর্ধমান লড়াইয়ে, বাকি খেলোয়াড়দের সঙ্গে আম্পায়ারকে রক্ষা করতে আসতে হয়েছিল।

এদিনের ম্যাচেপ্রথমে ব্যাট করতে নেমে আফগানিস্তান পাকিস্তানকে জয়ের জন্য ১৩০ রানের টার্গেট দিয়েছিল। পাকিস্তান ১ উইকেট বাকি থাকতেই এই স্কোর অর্জন করেন এবং ২০২২ এশিয়া কাপ-এর ফাইনালের টিকিট পেয়ে যায়। শেষ ওভারে ব্যাক টু ব্যাক ছক্কা মেরে পাকিস্তানকে এই জয় এনে দেন নাসিম শাহ।

বন্ধ করুন