বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > প্রমাণের অভাবে ছেড়েছিল CBI, নদিয়ায় BJP কর্মী খুনে আত্মসমর্পণ ২ তৃণমূল নেতার
সিবিআই। 
সিবিআই। 

প্রমাণের অভাবে ছেড়েছিল CBI, নদিয়ায় BJP কর্মী খুনে আত্মসমর্পণ ২ তৃণমূল নেতার

সিবিআই অধিকারিকদের দাবি, এর আগেও ওই ২ জন তৃণমূল নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল।

হৃদয়পুরে বিজেপি কর্মী ধর্ম মণ্ডলের খুনের ঘটনায় এবার আত্মসমর্পণ করলেন ২ তৃণমূল নেতা। সম্প্রতি কৃষ্ণনগর আদালতে গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে ওই ২ নেতা। এর আগে এই ঘটনায় বিজয় ঘোষ ও অসীমা ঘোষকে গ্রেফতার করেছে সিবিআইয়ের তদন্তকারী আধিকারিকরা। উল্লেখ্য, ভোট পরবর্তী হিংসায় খুন ও ধর্ষণের ঘটনার তদন্তে নেমেছে এই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

জানা গিয়েছে, আত্মসমর্পণ করা দুই তৃণমূল নেতার নাম কালু শেখ ও বিভাস বিশ্বাস। কালু শেখ হৃদয়পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য ও বিভাস বিশ্বাস ওই পঞ্চায়েতের অস্থায়ী সদস্য। সিবিআই অধিকারিকদের দাবি, এর আগেও ওই ২ জন তৃণমূল নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল। এই ঘটনায় তাঁরা যে জড়িত থাকতে পারেন, সে বিষয়ে সন্দেহও করা হয়েছিল। কিন্তু তাঁদের প্রমাণের অভাবে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। গত মঙ্গলবার দুপুরে আদালতে আত্মসমর্পণের পর তাঁদের হয়ে জামিনের আবেদন করেন সরকারি আইনজীবী। কিন্তু আদালত জামিনের আবেদন নাকচ করে দেয়। আদালত তাঁদের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে।

উল্লেখ্য, ভোটে ফল প্রকাশের পর গত ১৪ মে হৃদয়পুরে বিজেপি নেতা ধর্ম মণ্ডলের উপর হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। এরপর গত ১৬ মে কলকাতার এনআরএস হাসপাতালে মৃত্যু হয় ধর্মের। ধর্ম মণ্ডলের পরিবারের তরফে আগে থেকেই কালু শেখকে গ্রেফতার করার দাবি জানানো হয়েছিল। পরিবারের অভিযোগ ছিল, কালু শেখের নেতৃত্বেই হামলা হয়েছিল। কিন্তু তাঁকে গ্রেফতার করা হয়নি। শেষপর্যন্ত আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য হলেন কালু। এর আগে গত শুক্রবার নিহত বিজেপি কর্মীর বাড়িতে গিয়েছিলেন সিবিআইয়ের প্রতিনিধি দল। শুধু নিহত বিজেপি কর্মীর বাড়িতেই নয়, স্থানীয় পঞ্চায়েত অফিসে গিয়েও জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন সিবিআই অফিসাররা।

বন্ধ করুন