বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > চুক্তিভিত্তিক কর্মী–ছাঁটাই এনবিএসটিসি–তে, ৩৫০ জনকে সরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ
কর্মী ছাঁটাইয়ের খবর মিলল উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগমে। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
কর্মী ছাঁটাইয়ের খবর মিলল উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগমে। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

চুক্তিভিত্তিক কর্মী–ছাঁটাই এনবিএসটিসি–তে, ৩৫০ জনকে সরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ

  • কিন্তু এখন তাঁদের না জানিয়ে বাদ দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

করোনা আবহে এমনিতেই বহু মানুষের কাজ নেই। বেকার হয়েছেন দেশের বহু মানুষ। পরিযায়ী শ্রমিকদের জীবনে নেমে এসেছে অন্ধকার। এবার কর্মী ছাঁটাইয়ের খবর মিলল উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগমে। তাদের ৩৫০ জন চুক্তিভিত্তিক চালক এবং অন্যান্য কাজের সঙ্গে জড়িত কর্মীকে ইতিমধ্যেই বাদ দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। কেন এনবিএসটিসিতে ছাঁটাই?‌ তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন রুটে বাস চালাতে এই কর্মীদের নেওয়া হয়েছিল। তাঁদের দাবি, অন্য চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের মতো তাঁদেরকেও চুক্তি নবীকরণের আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এখন তাঁদের না জানিয়ে বাদ দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। এখানে যোগ দেওয়ার আগে তাঁদের অনেকে বেসরকারি বাস, ট্রাক চালাতেন। কাজ থেকে বাদ পড়ার ফলে পুরনো সেই কাজও পাচ্ছেন না। এখন উভয়সংকটে সেই কর্মীরা।

এই বিষয়ে এনবিএসটিসির ম্যানেজিং ডিরেক্টর সুনীল আগরওয়াল জানান, নির্বাচনে অতিরিক্ত বাস চালানোর জন্য এজেন্সির মাধ্যমে তাঁদের নেওয়া হয়েছিল। নির্বাচন শুরু হওয়ার আগে এজেন্সিকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল আপাতত চার মাসের জন্য নেওয়া হচ্ছে। এই বিষয়ে তিনি বলেন, ‘নতুন করে যাতে বাদ পড়া কর্মীদের নেওয়া হয় তা পদস্থ কর্তাদের জানানো হয়েছে।’

জানা গিয়েছে, রাজ্য সরকার নিগমের সমস্ত বাস রুটে নামাতে নির্দেশ দিয়েছে। নর্থ বেঙ্গল স্টেট টান্সপোর্ট এমপ্লয়িজ ইউনিয়নের দাবি, তাঁরা প্রথম থেকে চুক্তিভিত্তিক কর্মী নিয়োগ বন্ধের দাবি তুলেছেন। সংস্থার এক আধিকারিক বলেন, ‘নিয়ম মেনেই নিয়োগ করা হয়েছে। নবীকরণের জন্য আবেদন করা হয়েছে এনবিএসটিসির কাছে।’

বন্ধ করুন