বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঝাড়খণ্ড থেকে এসে ATM জালিয়াতির পরিকল্পনা! আসানসোলে ধৃত জামতাড়া গ্যাংয়ের ৪
ধৃত চার জালিয়াত
ধৃত চার জালিয়াত

ঝাড়খণ্ড থেকে এসে ATM জালিয়াতির পরিকল্পনা! আসানসোলে ধৃত জামতাড়া গ্যাংয়ের ৪

  • আসানসোল রেল স্টেশন সংলগ্ন ভিআইপি রোডের একটি এটিএমের সামনে চারজন দাঁড়িয়েছিল। সেই সময় পুলিশের সন্দেহ হয়।

জামতাড়া গ্যাংয়ের চারজন অপরাধীকে বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করল আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশ। জানা গিয়েছে ধৃতরা ঝাড়খণ্ডের দেওঘর থেকে আসানসোলে এসেছিল এটিএম থেকে টাকা লুঠ করবে বলে। জানা গিয়েছে, আসানসোল রেল স্টেশন সংলগ্ন ভিআইপি রোডের একটি এটিএমের সামনে চারজন দাঁড়িয়েছিল। সেই সময় পুলিশের সন্দেহ হয়। তাদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে গেলে অভিযুক্তরা দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু পুলিশ তাদের ধরে ফেলে। ধৃতদের কাছ থেকে ২০টি পেটিএম কার্ড, ২০টি ভুয়ো সিমকার্ড, ৬টি মোবাইল এবং নগদ দু'লক্ষ দশ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের নাম শাহবাজ আনসারি, ইসমাইল আনসারি, আবিদ আনসারি ও কামরুদ্দিন আনসারি। ধৃতরা বিহারের বাসিন্দা। তবে এই চক্রের মূলপাণ্ডা ফুরকান আনসারি এই চারজনের সঙ্গে থাকলেও পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। তার সন্ধানে পুলিশ তল্লাশি চালাচ্ছে। ঝাড়খণ্ড এবং বিহার পুলিশও তার তল্লাশিতে নেমেছে।

বাজেয়াপ্ত হওয়া সিম, ফোন ও টাকা
বাজেয়াপ্ত হওয়া সিম, ফোন ও টাকা

উল্লেখ্য, আসানসোল-রানিগঞ্জ, দুর্গাপুর অঞ্চলে এই গ্যাং জাল বিস্তার করে রেখেছে। গ্যাংয়ের সঙ্গে যুক্ত বহু অপরাধী এই এলাকায় গা ঢাকা দিয়ে থাকে। সুযোগ পেলেই সাধারণ মানুষের অ্যাকাউন্ট ফাঁকা করে দেয় তারা। মূলত ভুয়ো সিমকার্ড থেকে ফোন করে গ্রাহকদের টাকা নয়ছয় করা হয় বলে জানা গিয়েছে।

মানুষকে ফোন করে বিভ্রান্ত করে দিয়ে কখনও এটিএম পিন জেনে নেওয়া, কখনও আবার ওটিপি পাঠিয়ে বিভিন্ন কৌশলে তা জেনে নিয়ে অ্যাকাউন্ট সাফ করতে ওস্তাদ এই জামতাড়া গ্যাং। ঝাড়খণ্ডের জামতাড়া জেলাতেই এই অপরাধচক্র গড়ে উঠেছে। সেখানে এই অপরাধের ট্রেনিং পর্যন্ত দেওয়া হয়। বহু শিক্ষিত যুবক এমনকি অনেক ব্যাঙ্কের কর্মীরাও বেশি টাকার লোভে এই জামতাড়া গ্যাংয়ের সঙ্গে জড়িয়ে যায় বলে অভিযোগ।

 

বন্ধ করুন