বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > স্যার কেন মাধ্যমিকে টুকলি করতে দেননি? বালুরঘাটের পরীক্ষাকেন্দ্রে তাণ্ডব, ভাঙচুর
বালুরঘাটের একটি স্কুলে ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ। প্রতীকী ছবি  (PTI)

স্যার কেন মাধ্যমিকে টুকলি করতে দেননি? বালুরঘাটের পরীক্ষাকেন্দ্রে তাণ্ডব, ভাঙচুর

  • স্থানীয় সূত্রে খবর, এবার পরীক্ষায় টুকলি করার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু তাতে বাধা দিয়েছিলেন পরীক্ষাকেন্দ্রে থাকা গার্ডরা। এনিয়ে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের সঙ্গে পরীক্ষার্থীদের কথাকাটাকাটিও হয়েছিল। তারপরেও টুকলি করার ছাড়পত্র মেলেনি। তবে কি সেই আক্রোশেই ভাঙচুর চালানো হল?

বালুরঘাট হাইস্কুলের ছাত্রদের মাধ্যমিক পরীক্ষার সিট পড়েছিল জয়চাঁদলাল প্রগতি বিদ্যাচক্র স্কুলে। স্কুলে কোনওরকমভাবেই অবৈধ উপায় অবলম্বন করা যাবে না বলে আগে থেকেই জানিয়ে দিয়েছিলেন প্রধান শিক্ষক। এদিকে পরীক্ষার হলে যথেষ্ট কড়া গার্ড দেওয়া হয়েছিল এবার। কেউ যাতে টুকলি করতে না পারে সেকারণে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। আর এটাই পছন্দ হয়নি কয়েকজন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর। সূত্রের খবর, মঙ্গলবার জয়চাঁদলাল প্রগতি বিদ্যাচক্র স্কুলে কার্যত তাণ্ডব চালানো হয়। ভূগোলের প্র্যাকটিকাল ক্লাসে ভাঙচুর চালানো হয়। লাইব্রেরিতেও ঢুকে পড়েছিল কয়েকজন। সেখানে বই তছনছ করা হয়েছে। এমনকী বইয়ের আলমারির কাঁচও ভেঙে ফেলা হয়েছে। স্কুলে যে সিলিং ফ্যান ছিল তার ব্লেডও বেঁকিয়ে দেওয়া হয়েছে। একাধিক আলমারিতে ভাঙচুর করা হয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন একটাই কারা এই তাণ্ডবের সঙ্গে যুক্ত?

ইতিমধ্যেই স্কুল কর্তৃপক্ষ বালুরঘাট থানায় এনিয়ে অভিযোগ জানিয়েছেন। এদিকে সন্দেহ করা হচ্ছে বালুরঘাট হাইস্কুলের পরীক্ষার্থীরা এই ঘটনার পেছনে থাকতে পারেন। বিষয়টি আঁচ করে বালুরঘাট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কাছেও লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এদিকে স্থানীয় সূত্রে খবর, এবার পরীক্ষায় টুকলি করার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু তাতে বাধা দিয়েছিলেন পরীক্ষাকেন্দ্রে থাকা গার্ডরা। এনিয়ে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের সঙ্গে পরীক্ষার্থীদের কথাকাটাকাটিও হয়েছিল। তারপরেও টুকলি করার ছাড়পত্র মেলেনি। তবে কি সেই আক্রোশেই ভাঙচুর চালানো হল?

 

বন্ধ করুন