বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ভাঙড়ে উদ্ধার ৭০টি চোরাই মোবাইল ফোন, গ্রেফতার দোকান মালিক

ভাঙড়ে উদ্ধার ৭০টি চোরাই মোবাইল ফোন, গ্রেফতার দোকান মালিক

উদ্ধার হওয়া মোবাইল ফোন ও ধৃত দোকান মালিক হাবিবুল্লাহ।

রবিবার ক্রেতা সেজে দোকানে যান কয়েকজন পুলিশকর্মী। ফোনের আসল নথি দেখতে চান তাঁরা। কিন্তু দোকান মালিক কোনও ফোনেরই আসল নথি দেখাতে পারেননি। এর পর দোকানি হাবিবুল্লাহ মোল্লাকে হেফাজতে নিয়ে তল্লাশি শুরু করেন পুলিশ আধিকারিকরা।

ভাঙড়ে চোরাই মোবাইল ফোন বিক্রি চক্রের সন্ধান পেল পুলিশ। রবিবার ভাঙড়ের কালেরআইট এলাকায় একটি দোকানে হানা দিয়ে ৭০টি চোরাই মোবাইল ফোন উদ্ধার করেছেন তদন্তকারীরা। গ্রেফতার করা হয়েছে মোবাইল ফোনের দোকানের মালিক হাবিবুল্লাহ মোল্লাকে।

ভাঙড় থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, কলেরআইটের একটি দোকান থেকে বৈধ নথি ছাড়া মোবাইল ফোন বিক্রি হচ্ছে বলে খবর পান পুলিশকর্মীরা। সেই মতো কিছুদিন ধরে দোকানটির ওপর নজরদারি চালাচ্ছেন তাঁরা। এমনকী ওই দোকান থেকে বিক্রি হওয়া কয়েকটি মোবাইল ফোন তারা খতিয়ে দেখেন। তাতেই জানা যায় ওই দোকানে বিক্রি হচ্ছে চোরাই মোবাইল ফোন। এর পরই দোকানে হানা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা।

রবিবার ক্রেতা সেজে দোকানে যান কয়েকজন পুলিশকর্মী। ফোনের আসল নথি দেখতে চান তাঁরা। কিন্তু দোকান মালিক কোনও ফোনেরই আসল নথি দেখাতে পারেননি। এর পর দোকানি হাবিবুল্লাহ মোল্লাকে হেফাজতে নিয়ে তল্লাশি শুরু করেন পুলিশ আধিকারিকরা। দোকান থেকে উদ্ধার হয় ৭০টি চোরাই মোবাইল ফোন।

ফোনগুলি বাজেয়াপ্ত করেছেন তদন্তকারীরা। ফোনগুলি কাদের তা খতিয়ে দেখতে IMEI নম্বর মিলিয়ে দেখার কাজ শুরু হয়েছে। আসল মালিকদের খোঁজ পাওয়া গেলে ফোনগুলি তাদের ফিরিয়ে দেওয়া হবে বলে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে। ধৃত হাবিবুল্লাহকে জেরা করে সে আর কাকে কাকে চোরাই মোবাইল ফোন বিক্রি করেছে তা জানার চেষ্টা করছেন তদন্তকারীরা।

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, এই ধরণের চোরাই মোবাইল ফোন বিক্রি করা যেমন অপরাধ তেমনই এই ফোন ব্যবহারকারীরাও যে কোনও সময় ধরা পড়ে যেতে পারেন। সেক্ষেত্রে আইনি জটিলতার মুখে পড়তে পারেন তাঁরাও।

 

বন্ধ করুন