বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ক্লাব কমিটির সভাপতি শুভেন্দু,দুর্গাপুজোর অনুমতি বাতিলের অভিযোগে মামলা হাই কোর্টে
শুভেন্দু অধিকারী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
শুভেন্দু অধিকারী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

ক্লাব কমিটির সভাপতি শুভেন্দু,দুর্গাপুজোর অনুমতি বাতিলের অভিযোগে মামলা হাই কোর্টে

  • দুর্গাপুজোর অনুমতি দিতে অস্বীকার করা হয়েছে প্রশাসনের তরফে। এমনই অভিযোগ পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি শহরের চৌরঙ্গী রিক্রিয়েশন ক্লাবের।

দুর্গাপুজোর অনুমতি দিতে অস্বীকার করা হয়েছে প্রশাসনের তরফে। এমনই অভিযোগ পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি শহরের চৌরঙ্গী রিক্রিয়েশন ক্লাবের। আর এই অভিযোগে করকাতা হাই কোর্টে মামলা দায়ের করল পুজো উদ্যোক্তরা। প্রসঙ্গত, এই ক্লাব কমিটির সভাপতি রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। আর তাই নাকি ক্লাবটিকে পুজো করার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

উদ্যোক্তাদের অভিযোগ শাসক দল তৃণমূলের চক্রান্তে পুজোর অনুমতি মেলেনি। ক্লাবের সম্পাদক তুষারকান্তি দাসের দাবি, গত ১৬ অগস্ট যাবতীয় নিয়ম মেনে সেচ দফতরের কাছে অনুমতি চেয়ে চিঠি দেয় পুজো কমিটি। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে ১৯ ১৯ অগস্ট অনুমতি মেলে। তবে সেদিনই ফের সেচ দফতরের এক আধিকারিক অনুমোদন পত্রটি চেয়ে নেন এই বলে যে তাতে কিছু বিষয় যোগ করতে হবে। এরপরই নাকি বলা হয়, শুভেন্দুকে ক্লাবের সভাপতি পদ থেকে না সরানো হলে পুজোর অনুমতি দেওয়া যাবে না।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমকে একজন ক্লাব সদস্য বলেন, 'পুজোটি ক্লাবের তরফে আয়োজন করা হলেও পুরো কাঁথিতে সবাই এটাকে শুভেন্দুদার পুজো বলে জানে। আজ তিনি দলবদল করেছেন বলেই এত সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে এই পুজোর অনুমতি নিয়ে। আমরা প্রতি বছর ধুমধাম করে পুজো করি। স্থানীয় বাসিন্দারাও এই পুজোকে ঘিরে আনন্দ করেন।' এদিকে তুষারকান্তি বাবু জানান, ২০২০ সালে এই ক্লাবের সভাপতি ছিলেন শুভেন্দু। তবে তখনও তিনি দল বদল না করায় সেবছর সরকারি সাহায্য এসেছিল এবং ওই জমি ব্যবহারের অনুমতি মিলেছিল। সেই সংক্রান্ত নথি আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে বলা জানান তিনি। পাশাপাশি তাঁর বক্তব্য, ক্লাবের সভা বসবে আগামী জানুয়ারি, তার আগে শুভেন্দু অধিকারীকে সভাপতি পদ থেকে সরানো যায় না, আর তা অনৈতিক এবং বেআইনিও বটে।

বন্ধ করুন