বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > স্বাস্থ্যসাথীর নামে ভাঁওতাবাজি করছে রাজ্য সরকার, অভিযোগ দিলীপের

স্বাস্থ্যসাথীর নামে ভাঁওতাবাজি করছে রাজ্য সরকার, অভিযোগ দিলীপের

দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

দিলীপবাবুর আশঙ্কা, ‘এদের তো নিজের কর্মীদের পুষতে গিয়ে সরকারি টাকা শেষ। তার পর ক্লাবকে দিতে গিয়ে, দুর্গাপুজোয় দিতে গিয়ে লুঠ হয়ে যাচ্ছে।

স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের নামে রাজ্য সরকার মানুষকে ভাঁওতা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করলেন বিজেপি নেতা দিলীপ ঘোষ। বুধবার তিনি বলেন, ক্লাব আর দুর্গাপুজোয় দিতে গিয়ে সব টাকা শেষ হয়ে যাচ্ছে। মানুষের চিকিৎসার কী হবে?

এদিন দিলীপবাবু বলেন, ‘বেসরকারি হাসপাতালে যে রেট দেওয়া হয়েছে তারা চালাতে পারছে না। এক একটা হাসপাতালের কয়েক কোটি টাকা বকেয়া রয়ে গিয়েছে। তারা বলছে আমরা কয়েক হাজার রোগী দেখেছি, এক পয়সা রাজ্য সরকার দিচ্ছে না। স্বাস্থ্যসাথী বলে লোককে বোকা বানানো হচ্ছে। এই প্রকল্পের ভবিষ্যৎ কী হবে? আর সাধারণ মানুষের চিকিৎসার কী হবে’?

দিলীপবাবুর আশঙ্কা, ‘এদের তো নিজের কর্মীদের পুষতে গিয়ে সরকারি টাকা শেষ। তার পর ক্লাবকে দিতে গিয়ে, দুর্গাপুজোয় দিতে গিয়ে লুঠ হয়ে যাচ্ছে। না লক্ষ্মীর ভাণ্ডার হবে আর না স্বাস্থ্যসাথী হবে। কেবল ভাঁওতাবাজি। এখন সব ধরা পড়ছে’।

বলে রাখি, স্বাস্থ্যসাথীর বকেয়া না মেটানোয় রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে হাওড়ার ফুলেশ্বরের সঞ্জীবন হাসপাতাল। ৬ হাজার রোগীর প্রায় ৬৪ কোটি টাকা রাজ্য সরকার শোধ করছে না বলে অভিযোগ জানিয়েছে তারা। এর পরই রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্যসাথীর নামে ভাঁওতাবাজির অভিযোগে সরব হয়েছেন বিরোধীরা।

বন্ধ করুন