বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Egra Incident: ধরপাকড়ের নামে হয়রানি, আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি আতশবাজি বাজি ব্যবসায়ীদের

Egra Incident: ধরপাকড়ের নামে হয়রানি, আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি আতশবাজি বাজি ব্যবসায়ীদের

বীরভূমের নলহাটিতে বেআইনি বাজির বিরুদ্ধে পুলিশের অভিযান চলছে।

কারখানায় তালা দিয়ে শ্রমিকদের ধরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কাঁচামাল বাজেয়াপ্ত করছে পুলিশ। এমনটা যদি চলতে থাকে তবে আগামী দিনে বড়সড় আন্দোলনের পথে যাবেন বলে আতশবাজি ব্যবসায়ীরা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

এগরা কাণ্ডের পর বেআইনি বাজি কারখানা বন্ধে নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। নবান্ন থেকে জারি করা হয়েছে ছ'দফা নির্দেশিকা। এই নির্দেশিকা পুলিশের কাছে আসতেই জেলায় জেলায় আতশবাজির বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হয়েছে। বাজি ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, বেআইনি বাজি ব্যবসায়ীদের ধরতে যাঁরা আইন মেনে ব্যবসা করেন তাঁদেরও হায়রানি করছে পুলিশ। কারখানায় তালা দিয়ে শ্রমিকদের ধরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কাঁচামাল বাজেয়াপ্ত করছে। এমনটা যদি চলতে থাকে তবে আগামী দিনে বড়সড় আন্দোলনের পথে যাবেন বলে আতশবাজি ব্যবসায়ীরা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

বাজি ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, শুক্রবার দিনভর দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ কারখানা বন্ধ করে দিয়েছে। ধরপাকড় করা হয়েছে শ্রমিকদের। আতশবাজি তৈরির কাঁচামাল সোরা, গন্ধক ও কাঠকয়লা বাজেয়াপ্ত করে নিয়ে গিয়েছে। যেগুলি দিয়ে বিস্ফোরক তৈরি করা যায় না। বাজি ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, ধরপাকড়ের নামে তাঁদের লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষতি করে দিচ্ছে পুলিশ।

শুক্রবার পুলিশের অভিযান শুরু হওয়ার পর বৈঠকে বসেন আতশবাজি ব্যবসায়ীরা। বেআইনি বাজি উদ্ধারের নামে পুলিশের এই ভূমিকা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তাঁরা। বেশ কয়েকদিন দেখার পর তারা বৃহত্তর আন্দোলনের পথে যাবেন বলেও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা।

বাংলা আতশবাজি সমিতির নেতা বিমল রায় সংবাদমাধ্যমকে বলেন,'পুলিশ কোথাও বিস্ফোরকজাত পদার্থ অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট, নাইট্রোজেন গ্লিসারিন বা পটাশিয়াম ক্লোরেড পায়নি। কারণ রাজ্যের আতশবাজি ব্যবসায়ীরা জানে কোনটা আইনি কোনটা বেআইনি। তাই তাঁদের হেনস্থা বন্ধ হোক।' তিনি কর্মসংস্থানের প্রসঙ্গও তোলেন। বিমল রায়ের কথায়, 'আতশবাজি ব্যবসার সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে ৩১ লক্ষ মানুষ যুক্ত আছেন। প্রশাসনের সিদ্ধান্তে তার যদি কর্মহীন হয়ে পড়েন তবে আমাদের পথে নামা ছাড়া উপায় থাকবে না। '

গত মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুরের এগরায় একটি বেআইনি বাজি কারখানায় বিস্ফোরণে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। কারখানার মালিক ভানু বাগ বিস্ফোরণের পর এলাকা ছেড়ে পালন। বৃহস্পতিবার তাঁরও মৃত্যু হয়। (বিস্তারিত পড়ুন। এগরা বিস্ফোরণে মৃত বেড়ে ১১, SSKM-এ মৃত্যু হল আরও ১ জনের )

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

ক্যাটের প্রাক্তন প্রেমিক ও স্বামীর মধ্যে এত্ত ভাব! বনশালির পার্টির ভাইরাল দৃশ্য ৩ কোটির সোনায় মোড়া কেক কেটে ৩০-এ পা উর্বশীর, জন্মদিনে জুটল কটাক্ষ ‘‌মা–বোনেদের আবেদনেই বেড়েছে লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকা’‌, বিজেপিকে তোপ অভিষেকের ২০২৪ লোকসভা ভোটের আগে মোদীর শেষ ‘মন কি বাত’-এ উঠল কোন কোন প্রসঙ্গ? আল্লুর ছেলে শাহরুখে ‘লুটপুট গায়া’, মুগ্ধ বাদশা চ্যালেঞ্জ দিলেন আব্রাম-সুহানাদের কেরালার জয়ে বিশাল লাভ মোহনবাগানের! কত নম্বরে ইস্টবেঙ্গল? রইল ISL-র পয়েন্ট তালিকা WPL 2024: দুরন্ত হরমনপ্রীত! টানা দ্বিতীয় ম্যাচে জয় পেল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স লোকসভা ভোটের আগে INLDর হেভিওয়েট নেতা খুন! রিয়ানায় SUV টার্গেট করে গুলি শুভেন্দু অধিকারীকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় IND vs ENG: প্রত্যেক ইনিংসে নতুন ওপেনিং বোলার! এর আগে এমনটা ঘটেছিল মাত্র তিনবার

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.