বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কলেরার জীবাণু মিলল কামারহাটির নমুনায়, NICED-এর রিপোর্টে বাড়ল আতঙ্ক
ছবিটি প্রতীকী (সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস) (HT_PRINT)
ছবিটি প্রতীকী (সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস) (HT_PRINT)

কলেরার জীবাণু মিলল কামারহাটির নমুনায়, NICED-এর রিপোর্টে বাড়ল আতঙ্ক

  • আক্রান্তদের মধ্যে ১২৮ জনের চিকিৎসা চলছে সাগরদত্ত হাসপাতালে।

কামারহাটি পৌরসভার বিভিন্ন অঞ্চলে ডায়রিয়ার প্রকোপে আক্রান্ত প্রায় ১৫০ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১২৮ জনের চিকিৎসা চলছে সাগরদত্ত হাসপাতালে। এছাড়া ইএসআই হাসপাতালে পুরুষ ও মহিলা মিলিয়ে ৪০ জন মতো ভর্তি রয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে তিনজনের। এরই মধ্যে সাগরদত্ত মেডিক্যাল কলেজ থেকে পাঠানো মলের নমুনায় মিলল কলেরার জীবাণু। এই নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল নাইসেডে। জানানো হয়, নমুনায় মিলেছে ভিব্রিও কলেরি ০১ ওগাওয়া জীবাণু।

এদিকে কামারহাটির যেই এলাকার বাসিন্দারা সবথেকে বেশি সংখ্যায় আক্রান্ত হচ্ছেন, সেখানে তিনটি ক্যাম্প করা হচ্ছে। গোটা কামারহাটি জুড়ে ১০টি মেডিক্যাল ক্যাম্প করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই ১৬০০০ ওআরএস এবং হ্যালোজেন ট্যাবল্যাট বিতরণ করা হয়েছে কামারহাটির বাসিন্দাদের মধ্যে। এই পরিস্থিতিতে যথেষ্টই উদ্বিগ্ন এলাকার সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে প্রশাসনিক কর্তারা।

ইতিমধ্যেই পরিস্থিতি পর্যাোচনা করতে জেলা স্বাস্থ্য দফতরের ৮ জনের প্রতিনিধিদল কামারহাটি পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড কুমোরপাড়া এলাকায় পরিদর্শন করে এসেছেন। জেলার উপ স্বাস্থ্য আধিকারিকের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল এলাকা ঘুরে দেখেন এবং আক্রান্ত রোগীর পরিবারের লোকজনদের সঙ্গে কথা বলেন বলে জানা গিয়েছে। তাছাড়া স্বাস্থ্য দফতরের যুগ্ম স্বাস্থ্য অধিকর্তা দীপঙ্কর মাঝির নেতৃত্বে স্বাস্থ্য ভবনের বিশেষজ্ঞ দল পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেছে সাগরদত্ত হাসপাতালে। পরিস্থিতি সামাল দিতে গঠন করা হয়েছে র‌্যাপিড রেসপন্স দল। তাছাড়া পরিস্থিতি সামাল দিতে জেনারেল মেডিসিন, সার্জারি-সহ একাধিক বিভাগের চিকিৎসকদের নিয়ে ডায়রিয়া ম্যানেজমেন্ট দল তৈরি করা হয়েছে সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজে।

 

বন্ধ করুন