বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > আরও এক রেকর্ডে বঙ্গতনয়! মুর্শিদাবাদের খড়গ্রামের সম্রাট কার্ড বানিয়ে করে দেখালেন এই কীর্তি
কার্ড বানিয়ে মুর্শিদাবাদের সম্রাট করে দেখালেন এই কীর্তি।

আরও এক রেকর্ডে বঙ্গতনয়! মুর্শিদাবাদের খড়গ্রামের সম্রাট কার্ড বানিয়ে করে দেখালেন এই কীর্তি

  • সবেমাত্র মাধ্যমিক পাশ করেছেন সম্রাট। আর তারপরই আরও এক খুশির খবর। ১৫ জুন তাঁর বাড়িতে এসে পৌঁছয় ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডের তরফে একটি পুরস্কার ও শংসাপত্র। বিশ্বের সবচেয়ে ছোট কার্ড বানিয়ে তিনি দখল করে নিয়েছেন এই রেকর্ড। 

মুর্শিদাবাদের খড়গ্রামের সম্রাট তাক লাগিয়ে দিয়েছেন রেকর্ড গড়ে। তাঁর রেকর্ড কার্ড বানানোয়! ভাবছেন এ কেমন রেকর্ড? তাহলে জানিয়ে রাখি দেশের সবচেয়ে ছোট কার্ড বানিয়ে ইন্ডিয়া বুক এফ রেকর্ডসে মুর্শিদাবাদের সম্রাট কর।

সবেমাত্র মাধ্যমিক পাশ করেছেন সম্রাট। আর তারপরই আরও এক খুশির খবর। ১৫ জুন তাঁর বাড়িতে এসে পৌঁছয় ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডের তরফে একটি পুরস্কার ও শংসাপত্র। দেশের সবচেয়ে ছোট কার্ড বানিয়ে তিনি দখল করে নিয়েছেন এই রেকর্ড। সম্রাটের সাফল্যে গোটা পরিবারের সঙ্গে সঙ্গে আপ্লুত খড়গ্রামের পাড়া পড়শিরাও। সম্রাট বলছেন, 'আমি ছোট থেকেই আঁকতে ভালবাসি। জেলা, রাজ্যস্তরে আঁকার বহু প্রতিযোগিতায় আমি অংশ নিয়েছি।' ফরাসী রাজনীতিতে তোলপাড়! প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ সংসদে খোয়ালেন সংখ্যাগরিষ্ঠতা

সম্রাট আঁকতে ভালবাসেন। তাই বাড়িতে ফেলে দেওয়া জিনিস বা মাটির প্রতিমা গড়তে আপন মনে। আর তার হাত ধরেই সম্রাটের বাড়িতে পর পর পুরস্কার। এদিকে, ২ সেন্টিমিটার লম্বা ও চওড়ায় ১.৫ সেন্টিমিয়ার লম্বা এই কার্ড তৈরি করে ফেলেন সম্রাট। যার হাত ধরে তিনি আজ সাফল্যের অধিকারী। কার্ডের প্রথমে রয়েছে দেশের জাতীয় পতাকা, দ্বিতীয় পাতায় রয়েছে অশোক স্তম্ভ, তৃতীয় পাতায় রয়েছে নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসুর ছবি। সম্রাট বলছেন, ' এমন ক্ষুদ্র একটা শুভেচ্ছাপত্র বানানো কঠিন ছিল। .. পুরস্কার পাওয়ার খবর পেয়েআমি খুশি। '

বন্ধ করুন