বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Sonamukhi Municipality: মেটানো হচ্ছে না বকেয়া বেতন, পুরসভার গেটে তালা লাগিয়ে বিক্ষোভ অস্থায়ী কর্মীদের

Sonamukhi Municipality: মেটানো হচ্ছে না বকেয়া বেতন, পুরসভার গেটে তালা লাগিয়ে বিক্ষোভ অস্থায়ী কর্মীদের

সোনামুখী পৌরসভা।

বকেয়া বেতন মেটানোর দাবিতে গত কয়েক মাস ধরে বিক্ষোভ আন্দোলন করছেন অস্থায়ী কর্মীরা। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোরে পুরসভার গেটে তালা লাগিয়ে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেন তাঁরা। এর ফলে পুরসভার বিভিন্ন পরিষেবা বিশেষ করে সাফাই অভিযান থেকে শুরু করে জল, অ্যাম্বুলেন্স এবং অন্যান্য জরুরী পরিষেবা ব্যহত হয়েছে।

কাজ করার পরেও মিলছে না বেতন। এভাবে বেশ কয়েক মাস ধরে বেতন না পেয়ে সংসার চালাতে পারছেন না পুরসভার অস্থায়ী কর্মীরা। তাছাড়া, পেনশনভোগীদের পেনশনও আটকে রয়েছে কয়েক মাস ধরে। এই অবস্থায় বাঁকুড়ার সোনামুখী পুরসভার কর্মীরা বকেয়া বেতন মেটানোর দাবিতে পুরসভার গেটে তালা লাগিয়ে বিক্ষোভ করলেন। অস্থায়ী শ্রমিক এবং কর্মচারীদের পাশাপাশি পেনশনধারীরাও অবস্থান বিক্ষোভ করেন। দ্রুত এই সমস্যার সমাধানের দাবি জানিয়েছেন কর্মীরা। 

আরও পড়ুন: সাফাই কর্মীদের কাজে ফাঁকি রুখতে কী ব্যবস্থা নিচ্ছে কলকাতা পুরসভা

বকেয়া বেতন মেটানোর দাবিতে গত কয়েক মাস ধরে বিক্ষোভ আন্দোলন করছেন অস্থায়ী কর্মীরা। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোরে পুরসভার গেটে তালা লাগিয়ে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেন তাঁরা। এর ফলে পুরসভার বিভিন্ন পরিষেবা বিশেষ করে সাফাই অভিযান থেকে শুরু করে জল, অ্যাম্বুলেন্স এবং অন্যান্য জরুরী পরিষেবা ব্যহত হয়েছে। এরফলে পুরসভার কোনও কর্মী ভিতরে ঢুকতে পারেননি। এমনকী কোনও কাউন্সিলরও ভিতরে ঢুকতে পারেননি। এদিন বিক্ষোভের পরেই তড়িঘড়ি বিকেলে অস্থায়ী কর্মীদের সঙ্গে আলোচনায় বসে পুরসভা কর্তৃপক্ষ। সোনামুখী পুরসভার চেয়ারম্যান সন্তোষ মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এই বৈঠক হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান সোমনাথ মুখোপাধ্যায়ের সহ অন্যান্য কাউন্সিলররা। এছাড়া আন্দোলনকারীরা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে অস্থায়ী কর্মীদের দ্রুত বকে মেটানোর আশ্বাস দিয়েছেন চেয়ারম্যান। পাশাপাশি পেনশনভোগীদের বকেয়া মেটানোরও আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। সে বিষয়ে চেয়ারম্যান জানান, কর্মচারীদের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। তাঁদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে।  

উল্লেখ্য, সোনামুখী পুরসভায় কর্মচারীদের বেতনের সমস্যা দীর্ঘদিন ধরে। পুরসভা ভোটের আগেও সেখানকার অস্থায়ী কর্মীরা বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন। তারপরে বেশ কয়েক দফায় বিক্ষোভ দেখিয়েছেন অস্থায়ী কর্মীরা। গত মার্চ মাসে বেতনের দাবিতে কর্ম বিরতির ডাক দিয়েছিলেন অস্থায়ী কর্মীরা। যার ফলে পুরসভার বিভিন্ন পরিষেবা কার্যতা ব্যহত হয়েছিল। যদিও আগে এবিষয়ে পুরসভার চেয়ারম্যান জানিয়েছিলেন বেশি সংখ্যায় অস্থায়ী কর্মী নিয়োগের ফলেই এই সমস্যা হচ্ছে। বকেয়া বেতন নিয়ে এর আগে বারংবার বিরোধীরা আক্রমণ করেছে তৃণমূলকে। এই অবস্থায় সমস্যার সমাধানে তৎপর হয়েছে পুরসভা কর্তৃপক্ষ। 

 

বন্ধ করুন