বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌বালু জেলাটা শেষ করে দিচ্ছে’‌, মমতার লাইভে মন্তব্য করে নিখোঁজ তৃণমূলকর্মী
জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক (নিজস্ব চিত্র)
জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক (নিজস্ব চিত্র)

‘‌বালু জেলাটা শেষ করে দিচ্ছে’‌, মমতার লাইভে মন্তব্য করে নিখোঁজ তৃণমূলকর্মী

  • সম্প্রতি দলের নেতাদের নিয়ে একটি বৈঠক করছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছিল। তখনই জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বিরুদ্ধে মন্তব্য করেন বনগাঁ পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সিন্টু ভট্টাচার্য।

ফেসবুক লাইভ চলাকালীন এক তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিযোগ করেছিলেন তাঁর মন্ত্রিসভার সদস্য জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে নিয়ে। তিনি এখন রাজ্যের বনমন্ত্রী। এই ঘটনার পরই বনগাঁর এই তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করা হল দলের পক্ষ থেকে। কিন্তু সেই তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সিন্টু ভট্টাচার্য নিখোঁজ হয়ে যান। এমনই দাবি তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর পরিবারের।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ সম্প্রতি দলের নেতাদের নিয়ে একটি বৈঠক করছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছিল। তখনই জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বিরুদ্ধে মন্তব্য করেন বনগাঁ পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সিন্টু ভট্টাচার্য। কী লেখেন তিনি সেখানে?‌ তিনি লেখেন, ‘বালু মল্লিক (জ্যোতিপ্রিয়) উত্তর ২৪ পরগনা জেলাটা শেষ করে দিচ্ছে। দিদি, দয়া করে নজর দিন।’ তারপরই হাবড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তন্ময় রায় নামে বালু ঘনিষ্ঠ কর্মী।

কী বলছে সিন্টুর পরিবার?‌ এই ঘটনার পর সিন্টুকে ধরতে বাড়িতে পুলিশ গেলে সিন্টুর বাবা স্বপন ভট্টাচার্য বলেন, ‘ছেলে ভুল করে ফেলেছে। এইসব মিটিয়ে নেওয়া হোক।’‌ কিন্তু সিন্টু তো এখন নিখোঁজ। এই নিয়ে পরিবারের মাথায় হাত। এখন ছেলে নিখোঁজ নিয়ে পাল্টা অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সিন্টুর খোঁজ করছে পুলিশও।

যদিও এই ঘটনা নিয়ে রাজ্যের বনমন্ত্রী বিস্তারিত কিছু বলেননি। এই ঘটনা নিয়ে বনগাঁয় জোর চর্চা শুরু হয়েছে। ঠিক কী বলেছেন রাজ্যের মন্ত্রী?‌ আর রাজ্যের বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় বলেন, ‘আইন আইনের পথে চলবে।’ অনেকে বলছেন সিন্টু এই কথা বলে রোষানলে পড়েছেন। তাই তাঁকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। যদিও এই নিয়ে কিছু বলতে নারাজ তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী–সমর্থকরা।

বন্ধ করুন