বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'কোথায় গেল টাকা? একবস্ত্রে, অভুক্ত অবস্থায় রয়েছেন দুর্গতরা,' তোপ শুভেন্দুর
সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী (নিজস্ব চিত্র)
সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী (নিজস্ব চিত্র)

'কোথায় গেল টাকা? একবস্ত্রে, অভুক্ত অবস্থায় রয়েছেন দুর্গতরা,' তোপ শুভেন্দুর

  • তৃণমূলের লোক আর প্রশাসনের লোকজনকে দেখা যাচ্ছে না। ওরা শুধু ছবিতে রয়েছেন। প্রচারে রয়েছেন। অভিযোগ বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর

'আগের মতো আর কাজ করতে পারবেন না।' ইয়াসের আগেই আক্ষেপ করেছিলেন নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। এবার ইয়াস মিটতেই রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একেবারে তেড়েফুঁড়ে আক্রমণ শানালেন নন্দীগ্রামে বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর দাবি, এদিন তিনি উপকূলের বিস্তীর্ণ এলাকায় একের পর এক ত্রাণ শিবির ঘুরে দেখেন। ত্রাণ শিবির ঘুরে দেখে তিনি রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। তিনি বলেন,'প্রচার না করে আসল কাজটা করুন। জেলিংহামে দেখে এলাম মহিলারা ভিজে কাপড়ে একবস্ত্রে রয়েছেন। এভাবে থাকলে জ্বর এসে যাবে। দোকান খুলিয়ে কাপড়ের ব্যবস্থা করলাম। এমনকী হলদিয়াতে তৃণমূলের পতাকা ত্রাণ শিবিরে লাগিয়ে বলা হচ্ছে বিজেপির লোকজনকে ঢুকতে দেবে না। কেন্দ্রীয় সরকারও অনুদান পাঠিয়েছে। সেই সব অনুদানের টাকা কোথায় গেল?

বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর দাবি 'তৃণমূলের লোকজন আর প্রশাসনের লোকজনকে কোথাও দেখতে পাচ্ছি না। ওরা শুধু প্রচারে আছেন আর ছবিতে আছেন। রাজনৈতিক হিংসার জেরেও অনেকে ঘরছাড়া। তারা দুরবস্থার মধ্যে রয়েছেন। আমফানের মতো কেন্দ্রীয় সরকার টাকা পাঠাবে আর সেই টাকা আত্মসাৎ করবে বলে তৃণমূলের লোকজন অপেক্ষা করছে।' পাশাপাশি তিনি বলেন, ‘মুখ্য়মন্ত্রী একা রাত জাগেননি। এই যে এত মানুষ তাঁরা সকলেই রাত জেগেছেন।’ পাশাপাশি রাজ্য়ের রাজনৈতিক হিংসা নিয়েও সরব হন তিনি। তিনি বলেন, ‘প্রধামন্ত্রীর উপর আমাদের আস্থা রয়েছে। তিনিই এই হিংসা থেকে মুক্তির জন্য ব্যবস্থা নেবেন।’

 

বন্ধ করুন