বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নবান্নে জরুরি বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী–মুখ্যসচিব, দুর্যোগ মোকাবিলায় কড়া নির্দেশ
নবান্ন (‌ছবি সৌজন্য টুইটার)‌
নবান্ন (‌ছবি সৌজন্য টুইটার)‌

নবান্নে জরুরি বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী–মুখ্যসচিব, দুর্যোগ মোকাবিলায় কড়া নির্দেশ

  • নাগাড়ে বৃষ্টির জেলাগুলির কি হাল তা জানতে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছে নাগাড়ে বৃষ্টি। আর রাত পোহালেই তিন কেন্দ্রে নির্বাচন। তার মধ্যে রয়েছে কলকাতা পুরসভা এলাকার ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্র। যেখানে প্রার্থী হয়েছেন খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার এই বর্ষণমুখর পরিস্থিতি দেখে নবান্নে জরুরি বৈঠক ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে উপস্থিত রয়েছেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী, স্বরাষ্ট্রসচিব বিপি গোপালিকা–সহ শীর্ষ আধিকারিকরা। নাগাড়ে বৃষ্টির জেলাগুলির কি হাল তা জানতে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই বৈঠকে সেই রিপোর্ট নিয়েও আলোচনা চলছে বলে নবান্ন সূত্রে খবর।

দফায় দফায় বৃষ্টিতে কোথাও কোথাও জল জমতে শুরু করেছে। বুধবারও একই পরিস্থিতি থাকবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছিলেন আবহাওয়া দফতরের কর্তারা। মঙ্গলবার রাত থেকেই দেখা যায় ভারী বৃষ্টি। তা আরও বাড়ে মাঝরাতে। তবে বেলার দিকে একটু থামলেও পরে আবার শুরু হয়। এমনকী কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, দুই ২৪ পরগনা, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুরে টানা বৃষ্টি চলছেই।

এই পরিস্থিতি চলতে থাকলে তা বানভাসী অবস্থার সৃষ্টি করতে পারে। তাই উদ্বিগ্ন মুখ্যমন্ত্রীও। তাই নবান্নে জরুরি বৈঠক ডাকলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে গোটা পরিস্থিতি মোকাবিলায় যা করা উচিত সেটাই করতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি বলে খবর। জেলাশাসকদের কাছ থেকে চাওয়া হয়েছে সমস্ত রিপোর্ট। সেই রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন দফতরকে সমন্বয় করে কাজ করতে বলেছেন তিনি।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার আগের থেকে অবস্থা অনেক ভাল হবে। কমবে বৃষ্টি। বৃহস্পতিবার ভবানীপুর–সহ সামশেরগঞ্জ, মুর্শিদাবাদে ভোট। তাই সব দিকেই নজর রাখছেন প্রশাসনিক আধিকারিকরা। ভবানীপুরে যেখানে যেখানে জল জমে সেখানে পাম্প বসানো হচ্ছে। নৌকা এবং রেনকোটের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। বাকি দুই কেন্দ্রেও উপযুক্ত ব্যবস্থা রাখতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী বলে খবর।

বন্ধ করুন