বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পৌষ মেলার মাঠে পাঁচিল তোলায় স্থগিতাদেশ দিল না কলকাতা হাইকোর্ট
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
কলকাতা হাইকোর্ট (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

পৌষ মেলার মাঠে পাঁচিল তোলায় স্থগিতাদেশ দিল না কলকাতা হাইকোর্ট

  • ওদিকে এদিন আদালতে পাঁচিল তোলার ওপর স্থগিতাদেশ চেয়ে রাজ্য সরকারের দায়ের করা মামলার শুনানি ছিল। প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণণের ডিভিশন বেঞ্চে সেই মামলার শুনানিতে আদালত কোনও স্থগিতাদেশ দেয়নি।

বিশ্বভারতীর মাঠ ঘেরার ওপর স্থগিতাদেশ চেয়ে রাজ্যের দায়ের করা আবেদনে কোনও নির্দেশ দিল না হাইকোর্ট। আদালতের তরফে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, পেশিশক্তির প্রয়োগ করে আদালতের রায় কার্যকর করতে বাধা দেওয়া হলে চরম পদক্ষেপ করতে পারেন প্রধান বিচারপতি। এদিন আদালত গঠিত চার সদস্যের কমিটি থেকে অব্যহতি চেয়েছেন রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত। 

সোমবার থেকে ফের শুরু হয়েছে গ্রিন ট্রাইব্যুনালের নির্দেশে বিশ্বভারতীর পৌষমেলার মাঠ ঘেরার কাজ। আর তার পর দিনই এলাকায় বিক্ষোভ দেখান বেশ কিছু স্থানীয় মানুষ। এলাকায় বাউল গানের সুরে পাঁচিল তোলার প্রতিবাদ করেন তাঁরা। বিক্ষোভ সামাল দিতে এদিন জলকামান তৈরি রেখেছিল প্রশাসন। তবে তা ব্যবহার করতে হয়নি। সূত্রের খবর, বিক্ষোভ বাড়লে এলাকায় ১৪৪ ধারা জারির আবেদন করতে পারে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ।

ওদিকে এদিন আদালতে পাঁচিল তোলার ওপর স্থগিতাদেশ চেয়ে রাজ্য সরকারের দায়ের করা মামলার শুনানি ছিল। প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণণের ডিভিশন বেঞ্চে সেই মামলার শুনানিতে আদালত কোনও স্থগিতাদেশ দেয়নি। উলটে বিচারপতিরা জানিয়েছেন, পৌষ মেলা মাঠে পাঁচিল তুলতে দরকারে বুলেটের মুখোমুখি হতে তৈরি আমরা। গায়ের জোরে এভাবে আদালতের রায় কার্যকর করতে বাধা মানা যায় না। 

তবে পৌষ মেলা বন্ধে গ্রিন ট্রাইব্যুনাল যে নির্দেশ দিয়েছে তা পুনর্বিবেচনা হতে পারে বলে জানিয়েছে আদালত। আদালতের তরফে জানানো হয়েছে, বিশ্বভারতীর একটা ঐতিহ্য রয়েছে। তা বিবেচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে আদালত। এদিন আদালত গঠিত ৪ সদস্যের কমিটি থেকে অব্যহতি চেয়েছেন রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত। তাঁর আবেদন খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এই ঘটনায় মূল মামলার শুনানি আগামিকাল। সেই মামলায় আদালত কী নির্দেশ দেয় সেদিকে তাকিয়ে সব পক্ষ। 

 

বন্ধ করুন