ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

কেন্দ্র - রাজ্য সমন্বয়েই সাফল্য, উপসর্গ দেখানোর আগেই কলকাতায় চিহ্নিত COVID-19

  • রিপোর্টে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানায়, ওই যুবক ব্রিটেনে একটি পার্টিতে যোগ দিয়েছিলেন। সেই পার্টিতে যোগদানকারী অন্তত ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেছে।

কেন্দ্র ও রাজ্যের নিবিড় যোগাযোগে উপসর্গ দেখা দেওয়ার আগেই কলকাতায় চিহ্নিত হলেন করোনাভাইরাস আক্রান্ত। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জানা যায়, বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকা এক যুবকের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রয়েছেন। তিনি আবার পশ্চিবমবঙ্গ সরকারের এক আমলার ছেলে। সম্প্রতি বিলেত থেকে ফিরেছিলেন তিনি।

স্বাস্থ্য দফতরের কর্তারা জানিয়েছেন, ওই যুবকের দেহে জ্বর, সর্দি, কাশি বা শ্বাসকষ্টের মতো করোনাভাইরাস সংক্রমণের কোনও উপসর্গই নেই তার মধ্যে। গত ১৫ মার্চ যখন বিদেশ থেকে তিনি কলকাতায় ফেরেন তখনও বিমানবন্দরে থার্মাল স্ক্যানিংয়ে তার দেহের তাপমাত্রায় কোনও অস্বাভাবিকতা লক্ষ্য করা যায়নি। এর পরও সম্পূর্ণ সুস্থ ছিলেন তিনি। তবে ব্রিটেনে করোনাভাইরাস মহামারির আকার নেওয়ায় ওই যুবককে হোম কোয়ারেনটাইনে থাকতে বলা হয়েছিল।

এরই মধ্যে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের এক রিপোর্টে নড়েচড়ে বসেন এরাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তারা। ওই রিপোর্টে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানায়, ওই যুবক ব্রিটেনে একটি পার্টিতে যোগ দিয়েছিলেন। সেই পার্টিতে যোগদানকারী অন্তত ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেছে। সোমবার এই রিপোর্ট পেয়েই যুবককে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার নির্দেশ দেন স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা।

মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালে হাজির হন তিনি। তার পর তাঁকে পাঠানো হয় অবজারভেশন ওয়ার্ডে। যুবকের সোয়াবের নমুনা পাঠানো হয় পরীক্ষায়। সন্ধ্যায় জানা যায়, আশঙ্কাই সত্যি হয়েছে। কোনও উপসর্গ না থাকলেও যুবকের দেহে সুপ্ত অবস্থায় রয়েছে করোনাভাইরাস।



বন্ধ করুন