বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > দিলীপের রামভক্তিতেও ভেজাল? বুধবার লকডাউন মানব, জানালেন রাজ্য BJP সভাপতি
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

দিলীপের রামভক্তিতেও ভেজাল? বুধবার লকডাউন মানব, জানালেন রাজ্য BJP সভাপতি

  • মঙ্গলবার এক সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপ ঘোষ স্পষ্ট জানিয়ে দেন, রাজ্য সরকারের নির্দেশ মেনে বুধবার গোটা দিন নিজেকে গৃহবন্দি রাখবেন তিনি।

রাম মন্দিরের শিলান্যাসের দিন পশ্চিমবঙ্গে কমপ্লিট লকডাউন ভাঙায় সাধারণ মানুষকে উসকানি দিলেও নিজে যে লকডাউন ভাঙবেন না তা স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এমনকী দিলীপবাবু জানিয়েছেন, রামমন্দিরের শিলান্যাস নিয়ে কোনও অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করবে না বিজেপি। পুরোটাই হবে সামাজিক ভাবে। 

বুধবার রামমন্দিরের শিলান্যাসের দিন পশ্চিমবঙ্গে কমপ্লিট লকডাউন ঘোষণা করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্ত রামভক্তদের ভাবাবেগে আঘাত দিয়েছে বলে দাবি করেছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এমনকী ওই দিন পুলিশ কাউকে বাধা দিলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে পারে বলেও হুমকি দিয়ে রেখেছেন তিনি। কিন্তু বুধবার লকডাউন ভেঙে নিজে কি রাস্তায় বেরোবেন দিলীপবাবু?

মঙ্গলবার এক সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপ ঘোষ স্পষ্ট জানিয়ে দেন, রাজ্য সরকারের নির্দেশ মেনে বুধবার গোটা দিন নিজেকে গৃহবন্দি রাখবেন তিনি। তবে সকালে যাবেন প্রাতর্ভ্রমণে, তার পর কোনও মন্দিরে পুজো দেবেন তিনি। এর পর বাসভবনে ফিরে টিভিতে দেখবেন শিলান্যাস অনুষ্ঠান। দিলীপবাবু এদিন স্পষ্ট জানান, ‘লকডাউন মেনে আমি বাড়িতেই থাকব।’

তবে রামমন্দিরের শিলান্যাস উজ্জাপনের জন্য কেউ রাস্তায় বেরোলে তাকে যদি পুলিশ বাধা দেয় তাহলে ফল ভাল হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন তিনি। দিলীপবাবু বলেন, পুলিশের কাজ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা করা। মানুষের ধর্মাচরণে হস্তক্ষেপ করা নয়। 

কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, নিজে যখন সরকারের নির্দেশ মেনে ঘরেই থাকবেন, তাহলে সাধারণ মানুষকে কেন আইন ভাঙার জন্য উসকাচ্ছেন দিলীপবাবু। রামভক্তি আসল হলে কেন ভয় পাচ্ছেন পথে নেমে পুলিশের মুখোমুখি হতে?

 

বন্ধ করুন