বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হেরিটেজ বাড়ির অংশ বিক্রি!‌ শোভনের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের
শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি-ফেসবুক)

হেরিটেজ বাড়ির অংশ বিক্রি!‌ শোভনের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের

  • এখন শোভন চট্টোপাধ্যায় রাজ্য–রাজনীতিতে আর নেই। তিনি মেয়র পদ, মন্ত্রী পদ থেকে সংসার সব ছেড়ে দিয়েছেন। শুধু বান্ধবী বৈশাখীকে নিয়ে জীবন অতিবাহিত করছেন। এখন তাঁর আর্থিক টানাটানিও চলছে বলে তিনি সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন। কিন্তু অতীতের কর্ম তাঁর পিছু ছাড়ছে না।

এবার কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। আর এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই জোর আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। কারণ ত্রিপুরা ভবন একটি হেরিটেজ বাড়ি। সেখানে মেয়র থাকাকালীন তিরি ওই হেরিটেজ বাড়ির একাংশ বিক্রি করে দেন বলে অভিযোগ। তাই শোভনের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিলেন বিচারপতি অমৃতা সিনহা।

এখন শোভন চট্টোপাধ্যায় রাজ্য–রাজনীতিতে আর নেই। তিনি মেয়র পদ, মন্ত্রী পদ থেকে সংসার সব ছেড়ে দিয়েছেন। শুধু বান্ধবী বৈশাখীকে নিয়ে জীবন অতিবাহিত করছেন। এখন তাঁর আর্থিক টানাটানিও চলছে বলে তিনি সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন। কিন্তু অতীতের কর্ম তাঁর পিছু ছাড়ছে না। সারদা–নারদ মামলার পাশাপাশি হেরিটেজ বাড়ির অংশ বিক্রি করার অভিযোগ রয়েছে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে।

আর কী রয়েছে মামলায়?‌ আদালত সূত্রে খবর, এই মামলায় নাম রয়েছে শিল্পী শুভাপ্রসন্ন ভট্টাচার্যেরও। কারণ তিনি বহু বছর ধরেই রাজ্য হেরিটেজ কমিশনের চেয়ারম্যান। আর তাঁর পদে থাকাকালীন এই হেরিটেজ বাড়ির অংশ বিক্রি হয়েছিল। সুতরাং বিষয়টি তাঁর জানা উচিত বলে অনেকে মনে করছেন। এখন শোভন চট্টোপাধ্যায়কে জেরা করলেই বিষয়টি সামনে আসবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ এই হেরিটেজ বাড়ি নিয়ে ১০–১১ বছর আগে হেরিটেজ কমিশন থেকে একটা ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছিল। তখন হেরিটেজ কমিশনের চেয়ারম্যান ছিলেন শিল্পী শুভাপ্রসন্ন। ত্রিপুরা হাউস থেকে ১০০ মিটার দূরের একটা জায়গা নিয়ে বলা হচ্ছে বলে ঘনিষ্ঠমহলে শিল্লীর দাবি। কিন্তু আদালত এখন শোভনের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। সুতরাং নাম আসবে শিল্পীরও বলে মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন