বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘দুয়ারে রেশন’-এর উদ্বোধন করলেন মমতা, ডিলারদের ভুরিভুরি সাহায্যের প্রতিশ্রুতি
দুয়ারে রেশন প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মমতা। (PTI)
দুয়ারে রেশন প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মমতা। (PTI)

‘দুয়ারে রেশন’-এর উদ্বোধন করলেন মমতা, ডিলারদের ভুরিভুরি সাহায্যের প্রতিশ্রুতি

  • সঙ্গে তিনি জানান, রাজ্যে রেশন ডিলারদের লাইসেন্স মূল্য ৫ লক্ষ টাকা থেকে কমিয়ে ১ লক্ষ টাকা করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এই দর আরও কমানো যায় কি না তা ভেবে দেখার প্রস্তাব দেন তিনি।

দীর্ঘ দড়িটানাটানির পর মঙ্গলবার রাজ্যে ‘দুয়ারে রেশন’ প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে এক অনুষ্ঠানে এই প্রকল্পের উদ্বোধন করেন তিনি। এই প্রকল্পে বাড়ি বসে রেশন পাবেন সাধারণ মানুষ। রেশন তুলতে যেতে হবে না ন্যায্য মূল্যের দোকানে।

এদিনের অনুষ্ঠানে রেশন ডিলারদের উৎসাহিত করতে একগুচ্ছ সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। জানান, ডিলাররা নিজেদের গাড়িতে রেশন বিলি করলে আর্থিক সাহায্য হিসাবে এককালীন ১ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে তাঁদের। রাজ্যের সর্বত্র রেশন বিলি করতে ২১০০০ গাড়ির প্রয়োজন হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সঙ্গে তিনি জানান, রাজ্যে রেশন ডিলারদের লাইসেন্স মূল্য ৫ লক্ষ টাকা থেকে কমিয়ে ১ লক্ষ টাকা করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এই দর আরও কমানো যায় কি না তা ভেবে দেখার প্রস্তাব দেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী জানান দুয়ারে রেশন প্রকল্পের জন্য প্রত্যেক রেশন ডিলারকে ২ জন করে কর্মী নিয়োগের ছাড়পত্র দিয়েছে সরকার। এই ২ কর্মীকে ৫ হাজার টাকা করে মাসিক বেতন দেবে খাদ্য ও গণবণ্টন দফতর।

রাজ্যে দুয়ারে রেশন প্রকল্পের প্রথম থেকেই বিরোধিতা করে আসছেন রেশন ডিলাররা। তাঁদের দাবি, এই প্রকল্প অবাস্তব। এত মানুষকে বাড়ি গিয়ে রেশন পৌঁছে দেওয়া অবাস্তব। তাছাড়া আইন অনুসারে গ্রাহককে রেশন দোকানে এসেই পণ্য সংগ্রহ করতে হবে। অন্য কোথাও পণ্য হস্তান্তর করা বেআইনি। এই সব যুক্তি নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল রেশন ডিলারদের সংগঠন। তবে তাতে কর্ণপাত করেনি আদালত।

 

বন্ধ করুন