বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনায় মৃত্যুর হার ১ শতাংশের নীচে আনতে কোভিড হাসপাতালে মেডিক্যাল স্পেশ্যালিস্ট
কলকাতার রাস্তা স্যানিটাইজ করছেন এক পুরকর্মী। ছবি সৌজন্য : রয়টার্স (REUTERS)
কলকাতার রাস্তা স্যানিটাইজ করছেন এক পুরকর্মী। ছবি সৌজন্য : রয়টার্স (REUTERS)

করোনায় মৃত্যুর হার ১ শতাংশের নীচে আনতে কোভিড হাসপাতালে মেডিক্যাল স্পেশ্যালিস্ট

  • তাঁদের মধ্যে থাকবেন জেনারেল মেডিসিন, চেস্ট মেডিসিন, অ্যানাস্থেসিওলজি, নেফ্রোলজি, কার্ডিওলজি, নিউরোলজি বিশেষজ্ঞরা।

পশ্চিমবঙ্গে করোনাভাইরাসের জেরে মৃত্যের হার ১ শতাংশের নীচে নামিয়ে আনার লক্ষ্যে বিশেষ পদক্ষেপ করল রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর। এবার রাজ্যের বিভিন্ন কোভিড হাসপাতালে মেডিক্যাল স্পেশালিস্টদের রাখা হবে। বৃহস্পতিবার এমনই জানালেন রাজ্যের এক স্বাস্থ্য আধিকারিক।

তিনি জানান, রাজ্যের বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের দল নিকটবর্তী কোভিড হাসপাতালে নিয়মিত ভিজিট করবে। তাঁদের মধ্যে থাকবেন জেনারেল মেডিসিন, চেস্ট মেডিসিন, অ্যানাস্থেসিওলজি, নেফ্রোলজি, কার্ডিওলজি, নিউরোলজি বিশেষজ্ঞরা। ওই স্বাস্থ্য আধিকারিক আরও জানান, রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর হার এক শতাংশের নীচে নিয়ে আসার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েই এই ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের এই দল প্রতিটি কোভিড হাসপাতালে ২৪ ঘণ্টা রোগীদের জন্য উপস্থিত থাকবে।

জানা গিয়েছে, কলকাতা শহরে এসএসকেএম হাসপাতালের চিকিৎসকরা যাবেন এমআর বাঙুর হাসপাতাল এবং কেপিসি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। ওদিকে, কলকাতা ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ দল রাজারহাটের সিএনসিআই–তে চিকিৎসা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করবে। কলকাতার বাইরে কোভিড হাসপাতালে ভিজিট করা বিশেষজ্ঞদের দলে রাখা হবে জেলা হাসপাতাল বা সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের চিকিৎসকদের।

স্বাস্থ্য দফতরের ওই আধিকারিক জানিয়েছেন, রাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যত মানুষের মৃত্যু হয়েছে তার ৮৬ শতাংশ মৃত্যুর মূল কারণ কোমির্বিডিটি। এটা প্রকাশ্যে আসার পরই বিভিন্ন কোভিড হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের রাখার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন