বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যাক্সেশন ট্রাইব্যুনাল সংশোধনী বিল, ধ্বনি ভোটে পাশ বিধানসভায়
বিধানসভা। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যাক্সেশন ট্রাইব্যুনাল সংশোধনী বিল, ধ্বনি ভোটে পাশ বিধানসভায়

  • এই তিন সদস্যের সিলেকশন কমিটির মাথায় থাকবেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ঠিক করে দেওয়া কলকাতা হাইকোর্টের একজন বিচারপতি। বাকি দুই সদস্য ঠিক করবে রাজ্য। যদিও বিরোধী পরিষদীয় দলের দাবি, এই বিষয়টি বিচারাধীন। তাই এই বিল বিধানসভায় আনা বেআইনি।

এবার আরও একটি দায়িত্ব থেকে রাজ্যপালকে সরিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব পাশ হয়ে গেল বিধানসভায়। কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির সঙ্গে আলোচনা করেই ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যাক্সেশন ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান ও জুডিসিয়াল মেম্বার নিয়োগের পথে হাঁটতে চলেছে রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকার যাতে এই দায়িত্ব পায়, তাই সোমবার বিধানসভায় ধ্বনি ভোটে পাশ হল ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যাক্সেশন ট্রাইব্যুনাল (সংশোধনী) বিল।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ আগেই রাজ্যের সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য পদ থেকে রাজ্যপালকে সরিয়ে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে বসানোর বিল পাশ হয়েছিল। এবার এই ট্রাইব্যুনালে একজন টেকনিক্যাল সদস্যকে নিযুক্ত করা হয়। সিলেকশন কমিটির সঙ্গে কথা বলে রাজ্য যাতে ওই সদস্যকে নিযুক্ত করার ক্ষমতা পায়, তাই এই বিল আনা হল।

ঠিক কী বলেছেন অর্থ দফতরের প্রতিমন্ত্রী?‌ সংশোধনী বিল পেশ করে অর্থ দফতরের প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন, ‘‌৩ এপ্রিল থেকে ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান পদটি ফাঁকা আছে। সম্প্রতি অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি সম্বুদ্ধ চক্রবর্তীকে এই পদে নিয়োগ করা হয়েছে। শনিবার অর্থদফতর এই মর্মে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। আবার ট্রাইব্যুনালের টেকনিক্যাল মেম্বার পদটিও দীর্ঘদিন ধরে খালি। ফাইলে দেরি করে স্বাক্ষর করার জেরেই এই সমস্যা দেখা দিয়েছে।’‌ এখানে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের নাম না করে তাঁকে দায়ী করা হযেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

কারা থাকছে সিলেকশন কমিটিতে?‌ এই তিন সদস্যের সিলেকশন কমিটির মাথায় থাকবেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ঠিক করে দেওয়া কলকাতা হাইকোর্টের একজন বিচারপতি। বাকি দুই সদস্য ঠিক করবে রাজ্য। যদিও বিরোধী পরিষদীয় দলের দাবি, এই বিষয়টি বিচারাধীন। তাই এই বিল বিধানসভায় আনা বেআইনি।

বন্ধ করুন