বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > রত্নার হাতের লুচি-পায়েস খুব পছন্দ ছিল, সৌমিত্র তর্পণে স্মৃতিচারণা অশোকের
অশোকবাবু মন্ত্রী হওয়ার পরেও একাধিক বার তাঁদের বাড়িতে সৌমিত্র এসেছেন বলে মনে পড়ছে বাম নেতার।
অশোকবাবু মন্ত্রী হওয়ার পরেও একাধিক বার তাঁদের বাড়িতে সৌমিত্র এসেছেন বলে মনে পড়ছে বাম নেতার।

রত্নার হাতের লুচি-পায়েস খুব পছন্দ ছিল, সৌমিত্র তর্পণে স্মৃতিচারণা অশোকের

ছাত্রাবস্থায় থাকালীনই বেশ কয়েক বার নিজের শহরে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে দেখতে পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন বাম নেতা।

বামপন্থী রাজনীতিতে আজীবন বিশ্বাসী ছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। সেই সূত্রে বাম জমানার বহু নেতার সঙ্গেই তাঁর হৃদ্যতা গড়ে উঠেছিল। তাঁর প্রয়াণে প্রাক্তন পুরমন্ত্রী তথা শিলিগুড়ির প্রাক্তন মেয়র অশোক ভট্টাচার্যের স্মৃতি রোমন্থনে ফুটে উঠেছে অতীতের প্রতিফলন।

কিংবদন্তী অভিনেতা এক সময় উত্তরবঙ্গ সফরে এলে শিলিগুড়ি শহরে কয়েক দিন কাটাতেন, জানিয়েছেন অশোকবাবু। ছাত্রাবস্থায় থাকালীনই বেশ কয়েক বার তাঁকে নিজের শহরে দেখতে পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন প্রাক্তন বাম নেতা। 

অশোকবাবু মন্ত্রী হওয়ার পরেও একাধিক বার তাঁদের বাড়িতে সৌমিত্র এসেছেন বলে তিনি স্মৃতিচারণ করেছেন রবিবার। তাঁরল স্ত্রী রত্নাদেবীর হাতে রাঁধা লুচি-পায়েস বড় প্রিয় ছিল অভিনেতার, জানিয়েছেন অশোকবাবু। কয়েক বছর আছে অশোক ভট্টাচার্যের লেখা ‘তিন প্রজন্মের নগরায়ণ’ বইটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

প্রাক্তন মন্ত্রী কোভিড আক্রান্তল হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করে ফোন করেছিলেন সৌমিত্র। পরে তিনি নিজে কোভিডের গ্রাসে পড়লে পাল্টা ফোন করেছিলেন অশোকবাবুও। জীবনের উপান্তে এসেও এই লড়াই জিতবেন প্রিয় সুহৃদ, এমনই আশা করেছিলেন। শেষ পর্যন্ত অবশ্য সমস্ত আশায় যবনিকা টেনে জীবনের রঙ্গমঞ্চ থেকে চিরবিদায় নিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। এখন তাই স্মৃতিটুকুই সম্বল উত্তরবঙ্গবাসীর।

বন্ধ করুন