বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > সম্পর্কের সমীকরণ কেমন তাঁদের? আমিরের ডিভোর্স প্রসঙ্গে মুখ খুললেন ভাই ফইজল খান
আমির খান-ফইজল খান
আমির খান-ফইজল খান

সম্পর্কের সমীকরণ কেমন তাঁদের? আমিরের ডিভোর্স প্রসঙ্গে মুখ খুললেন ভাই ফইজল খান

  • দীর্ঘ কয়েক বছর দুই ভাইয়ের মধ্যে সম্পর্ক মোটেই ভাল ছিল না। 

অভিনেতা আমির খান ও ফইজল খান দুই ভাই। দুই ভাইয়ের মধ্যে সম্পর্ক বিগত কয়েক বছর খটমট থাকলেও বর্তমানে বেশ ভাল। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে দাদা অমিরের সঙ্গে ফইজলের কেমন সম্পর্ক সেই নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। এমনকি আমিরের ডিভোর্স প্রসঙ্গেও কথা বলেছেন তিনি। 

আমিরের সঙ্গে 'মেলা' ছবিতে সহ-অভিনেতা হিসেবে অভিনয় করেছিলেন ফইজল খান। কিন্তু সেই ছবি সশব্দে বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়তেই অভিনয়ের কেরিয়ার শেষ হয়ে গেছিল ফয়জলের। ২০১৫ সালে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজেই সেকথা জানিয়েছিলেন তিনি। বর্তমানে পরিচালক হিসেবে ডেবিউ করছেন আমির খানের ভাই ফইজল খান। ছবির নাম ফ্য়াক্টরি (Faactory)। মুক্তি পেয়েছে ছবির ট্রেলার। শুধু পরিচালকই নয়, ছবিতে অভিনয়ও করেছেন তিনি।

বর্তমানে আমিরের সঙ্গে ফইজলের সম্পর্কে সমীকরণ কেমন? সেই সম্পর্কে এক দৈনিক সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অভিনেতা জানিয়েছেন, ‘আমাদের মধ্যে সবকিছুই ঠিকঠাক আছে। আমি আমার মতো সিদ্ধান্ত নিতে পারি। আমি এমন পরিচালক নই যিনি জানেন না তিনি কী তৈরি করেছেন। আমি আমার সেরাটা দিয়েছি এবং আমার প্রযোজকরা আমাকে এতে সাহায্য করেছেন। ঈশ্বর এবং দর্শকদের রায় দেখা বাকি আছে’।

আমির খান-ফইজল খান
আমির খান-ফইজল খান

১৫ বছর একসঙ্গে সংসার করার পর মাস খানের আগেই ডিভোর্সের কথা ঘোষণা করেছেন আমি খান এবং কিরণ রাও। সেই সম্পর্কে ফইজলকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি তাঁদের কোন পরামর্শ দিতে পারি না। আমার বিয়ে সফল হয়নি, তাই আমি কারও ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে মন্তব্য করার কেউ নই। তাঁরা জানে তাঁদের জন্য কোনটা ভাল’।

ফয়জল অবশ্য জানিয়েছেন তাঁর মা এবং ভাই দুজনেই ফ্যাক্টরি দেখেছেন এবং এটি পছন্দ করেছেন। আমির তাঁর গাওয়া প্রশংসা করেন এবং বলেন, ‘তুমি গানটা খুব ভাল গেয়েছ। তুমি আমার থেকে ভাল’।

পরিবারের সঙ্গে আইনি লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়েছিলেন ফইজল খান। এরপরই পরিবার থেকে অভিনেতাকে এক বছরের জন্য 'গৃহবন্দী' রাখার অভিযোগ করেছিল কারণ তারা অনুভব করেছিল সে 'বিষন্ন ছিল এবং প্যারানয়েড সিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত ছিল'। এরপরই আদালতের দ্বারস্থ হন ফইজল। অভিনেতা বলেছিলেন যে তিনি ২০ দিনের জন্য জেজে হাসপাতালে মানসিক চিকিৎসা করেছিলেন, এরপরই তাঁকে শারীরিক এবং মানসিকভাবে সুস্থ ঘোষণা করা হয়েছিল। 

বলিউড হাঙ্গামাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতা জানিয়েছেন, ‘আমাকে এক বছরের জন্য ভুল ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছিল, যা পরিবারের পক্ষ থেকে খুবই অন্যায় ছিল’।

 

বন্ধ করুন